মেদ কমানোর মানহীন ওষুধ আর বেল্ট কতটা নিরাপদ ! (ভিডিও)

0
202

শারমিন আজাদ : বাড়তি মেদ কমাতে বিভিন্ন স্লিমিং ওষুধ কিংবা বেল্টের শরণাপন্ন হচ্ছেন অনেকেই। অথচ এসবের কোনটিতেই নেই কোনো অনুমোদন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই এসব ব্যবহার করে বিপাকে পড়ছেন ভুক্তভোগীরা।

নিয়মিত ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে পড়লে এসব ওষুধ হয়ে উঠতে পারে মাদকের নেশার মতো। আর ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানিকারকদের নামটিও তারা জানেন না।

চকবাজার থেকে সরাসরি চলে আসে নামী দামী শপিং মলে এসব স্লিমিং পণ্য। যদিও বিক্রেতাদের দাবি, চকবাজারের ব্যবসায়ীরা এসব ভারত থেকে আমদানি করেন। কিন্তু তারা জানেন না আমদানিকারকের নাম।

আর পণ্যের গায়েও নেই বিএসটিআই এর অনুমোদন। অথচ নিয়ম আছে অনুমোদন থাকতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াও অনেক ক্রেতার কাছেই এসব বিক্রি করছেন তারা।

ক্রেতারা বলছেন, কেনার পর ধোকাবাজিতে পড়ছেন তারা। ওষুধ খেয়ে অনেকেই শিকার হয়েছেন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার।

অনেক ধরণের ভাইব্রেটর দেয়া কিংবা ফেব্রিকের বেল্ট বিক্রি হচ্ছে দেদারছে। সুসজ্জিত দোকানে নানা ধরণের স্লিমিং ওষুধও হয়ে উঠছে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।