মৌলভীবাজারে ঝড়ের তাণ্ডব; ৯ ঘন্টা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

0
73

সঞ্জয় কুমার দে:

মৌলভীবাজারের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে দুই দফা গাছ পড়ে ৯ ঘন্টা সারা দেশের সাথে বন্ধ ছিল সিলেটের টেন চলাচল। একই সাথে লাউয়াছড়া পাকা সড়কের বিভিন্ন স্থানে গাছ ও বৈদ্যুতিক খুঁটি পড়ে ১২ ঘন্টা বন্ধ ছিল শ্রীমঙ্গল কমলগঞ্জ সড়ক পথ।

মঙ্গলবার ভোরে কাল বৈশাখী ঝড়ের সময় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের পাহাড়ি এলাকায় চট্রগ্রাম থেকে সিলেটগামী আন্ত:নগর উদয়ন ট্রেনের ইঞ্জিনের উপর গাছ পড়লে ভোর ৪টা ২৫ মিনিট থেকে সিলেটের সাথে সারা দেশের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে বলে জানান, শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী মাস্টার শাখাওয়াত হোসেন।

কমলগঞ্জের শমশেরনগর স্টেশন মাস্টার কবির আহমদ জানান, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪ টায় ঢাকা থেকে সিলেটগ্রামী আন্ত:নগর উদয়ন ট্রেন লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের পাহাড়ি এলাকা অতিক্রমের সময় আকস্মিকভাবে একটি বড় গাছ ভেঙ্গে পড়ে উদয়ন ট্রেনের ইঞ্জিনের উপর।

ফলে ঘটনার পর থেকে পাহাড়ি এলাকায় সহস্রাধিক যাত্রীবাহী উদয়ন ট্রেনটি আটকা পড়ে। এ অবস্থায় ভোর থেকেই এ ট্রেনের যাত্রীরা চরম ভোগান্তির মাঝে পড়েন।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কুলাউড়া থেকে রিলিফ ট্রেন এসে উদয়ন ট্রেনকে উদ্বার করে লাইন চালুর ২০ মিনিটের মাথায় লাউয়াছড়ার শ্রীমঙ্গল অংশে রেল লাইনের উপর আবারও গাছ পড়ে আটকা পড়ে ঢাকা গামী কালনী ট্রেন। বেলা ১টার দিকে গাছ কেটে পুনরায় ট্রেন চলাচল শুরু হয়।

এদিকে ঝড়ে লাউয়াছড়া পাকা সড়কের বিভিন্ন স্থানে গাছ পড়ে ভোর থেকেই বন্ধ রয়েছে শ্রীমঙ্গল- কমলগঞ্জ পাকা সড়ক। বেলা আড়াইটার দিকে পাকা রাস্তা থেকে বন বিভাগ ও শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গাছ সরিয়ে দেয়ার পর সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন এলাকায় প্রায় অর্ধশত বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙ্গে পড়ে জেলার বিভিন্ন উপজেলার বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন রয়েছে বলে জানান, মৌলভীবাজার পল্লি বিদ্যুৎ সমিতির মহা ব্যবস্থাপক শিবু লাল বসু।

তিনি জানান, মঙ্গলবার ভোরে ঝড়ে কমলগঞ্জের মাধপুর পাত্রকলা ও ধলই চা বাগান এলাকায় ২২টি খুঁটি ভেঙ্গে পড়েছে। প্রায় অর্ধশত বাড়িঘরের চাল উড়ে যায়। গাছ পড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয় বলে জানান, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মাহমুদুল হক। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে তিনি তথ্য সংগ্রহ করছেন।