যশোরের ঝাঁপা গ্রামে এলাকাবাসির উদ্যোগে ব্যারেল দিয়ে তৈরি হচ্ছে ১ কিলোমিটার ভাসমান সেতু

0
134

আগামী ৩১ ডিসেম্বর যশোরে উদ্বোধন করা হবে মনিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা গ্রামে এলাকাবাসির উদ্যোগে কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিতব্য ১ কিলোমিটার দীর্ঘ ভাসমান সেতুটির। এ জন্যে চলছে দিনান্ত পরিশ্রম। সরকারি সাহায্য নয়, শুধু নিজেদের উদ্যোগে কাজ করছে এলাকাবাসী।

সিমেন্ট কিংবা বালু নয়, প্লাস্টিকের ব্যারেল দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে সেতু। শুনতে অবাক মনে হলেও, যশোরের যশোরের মনিরামপুর উপজেলার ঝাঁপা গ্রামে গ্রামবাসীর সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তৈরি হয়েছে এক কিলোমিটার দীর্ঘ ভাসমান সেতু।

গ্রামটি বছরের বেশিরভাগ সময় পানি বন্দী থাকে। যোগাযোগ ব্যবস্থার একমাত্র মাধ্যম নৌকা। বহু বছরের এই দুর্ভোগে নিমজ্জিত ছিলো এখানকার মানুষ।

সমস্যা মাধানের কোর পথ না পেয়েছে গ্রামের কয়েকজন যুবক নিজ উদ্যোগে শুরু করেন ভাসমান সেতু তৈরির কাজ। এই বৃহৎ কর্মযজ্ঞে সহায়তা করেন গ্রামের প্রতিটি মানুষ।

প্রশিক্ষিত কোনো প্রকৌশলী প্রকল্প অভিজ্ঞদের কোনো ছোয়াঁ নেই এ কাজে, নিজেদের বুদ্ধি আর উদ্যমই এই বিশাল প্রকল্পের মূল প্রেরণা। ব্রিজটি চালু হলে, কাজে আসবে গতি, বাড়বে অর্থনৈতিক সম্ভাবনা, উপকার হবে কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ সব কাজে।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার মাধ্যমে বৃহৎ এই ভাসমান সেততুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন চান এলাকাবাসি ্ও উদ্যোক্তারা।

স্বপ্নের এই সেতু তৈরি হলে সব বন্ধ্যাত্ব ঘুচে যাবে, প্রমাণিত হবে সাধারণ মানুষ এক হলে সব বাধা দূও হয়ে উন্নয়নের আলো ফুটবেই মানুষের জন্যে, ২০১৮ সাল নতুন দিনের সূচনা করবে এই এলাকায় এমনটিই প্রত্যাশা সবার।