যুদ্ধাপরাধীর পক্ষ নেয়া ব্রিটিশ আইনজীবীকে খালেদার মামলার নিয়োগে ১৪ দলের নিন্দা

0
50

সন্ত্রাস এবং জঙ্গীবাদী কার্যক্রম সংগঠিত করে আওয়ামী লীগ সরকার ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ঠেকানো যাবেনা,যেকোন মূল্যে তা প্রতিহত করে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানালেন ১৪ দল নেতারা।

বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল আয়োজিত সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে একথা জানান নেতারা। যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষা করতে অতীতে নিয়োজিত আইনজীবীকে বেগম খালেদা জিয়ার মামলার আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় সমাবেশে তীব্র সমালোচনা করেন ১৪ দল নেতারা।

সম্প্রতি ডক্টর জাফর ইকবালের উপর হামলাসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল।

সমাবেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানিয়ে এবং যেকোন মূল্যে তা প্রতিহত করে মুক্তিযুদ্ধেও চেতনায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন ১৪ দল নেতারা।

যুদ্ধাপরাধীকে রক্ষা করতে অতীতে নিয়োজিত আইনজীবীকে বেগম খালেদা জিয়ার মামলার আইনজীবী করায় তীব্র সমালোচনা করেন ১৪ দল মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। বলেন, যে আইনজীবী মীর কাসিম আলীর জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল তাকে নিয়োগ দিয়েছে বিএনপি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এই কুখ্যাত বিদেশি আইনজীবী একাত্তরের ঘাতক, মীর কাশেম আলীর আইনজীবী হয়েছিলেন। যিনি একাত্তরের ঘাতকের লবিস্ট ছিলেন, সেই আইনজীবীকে এখন ঢাকায় আনছে খালেদা জিয়ার দল।’

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘বিএনপির নেত্রী জেলে আর তাদের আন্দোলন ঘরে। কারণ বাইরে আসার ক্ষমতা তাদের নেই। আইনের ওপর বিশ্বাসও তাদের। আদালত খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠিয়েছেন, এখানে আমাদের কোনও হাত নেই।’

তিনি বলেন, ‘এখনও খালেদা জিয়া জামায়াতকে ছাড়েননি। একাত্তরের ঘাতকদের ছাড়েননি। কিন্তু আগামী নির্বাচনে বাংলার জনগণ খালেদা জিয়াকে চিরদিনের জন্য ছেড়ে দেবে, বর্জন করবে। একাত্তরের ঘাতকদের আর ক্ষমতায় আসতে দেওয়া হবে না।’

সন্ত্রাস আর জঙ্গিবাদ প্রতিহত করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচির ঘোষণা দেন সমাবেশের সভাপতি ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।