যুদ্ধের জন্য দেশের সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে বললেন শি জিনপিং

0
430

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং দেশটির সেনাদের উদ্দেশ্যে মন ও শক্তি যুদ্ধের প্রস্তুতির ওপর রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। গত মঙ্গলবার গুয়াংডংয়ের সামরিক ঘাঁটি পরিদর্শককালে তিনি এ কথা বলেন। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

চাওঝু শহরে পিপলস লিবারেশন আর্মির মেরিন সেনাদের ঘাঁটি পরিদর্শনকালে শি জিন পিং, সেনাদের ‘রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায়’ থাকার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি তাদেরকে ‘সম্পূর্ণ অনুগত, নিখাঁদ এবং সম্পূর্ণ আস্থাভাজন’ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

সির বুধবার গুয়াংডং সফরের মূল উদ্দেশ্য ছিল শেনঝেনের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের ৪০তম বার্ষিকীর স্মরণে একটি ভাষণ দেওয়া। এটি ১৯৮০ সালে প্রতিষ্ঠিত। বৈদেশিক বিনিয়োগ আকর্ষণ ও চীনকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনৈতিক শক্তি করে গড়ে তুলতে এর বড় ভূমিকা রয়েছে।

তবে জিন পিং এমন সময় এই নির্দেশনা দিলেন যখন যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে গত কয়েক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ উত্তেজনা বিরাজ করছে। তাইওয়ান ইস্যু এবং করোনভাইরাস মহামারি নিয়ে ওয়াশিংটন ও বেইজিংয়ের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা চলছে।

সোমবার তাইওয়ানের কাছে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র বিক্রি চুক্তির বিষয়টি কংগ্রেসকে জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ।

বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে এর তীব্র প্রতিক্রিয়া জানানো হয়েছে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিঝিয়ান ওয়াশিংটনকে দ্রুত এই অস্ত্র বিক্রির পরিকল্পনা বাতিল করতে বলেছেন। এ ছাড়া তাইওয়ানের সঙ্গে সামরিক সম্পর্ক ছিন্ন করতেও যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

চীন সরকারের পছন্দ না হলেও ওয়াশিংটন ও তাইপের মধ্যে সঙ্গে সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হয়েছে। গত আগস্ট মাসে মার্কিন স্বাস্থ্য ও মানব পরিষেবাবিষয়ক মন্ত্রী অ্যালেক্স আজার তাইওয়ান সফর করেছেন।

এদিকে তাইওয়ান ঘিরে সামরিক মহড়া জোরদার করেছে চীন। গত ১৮-১৯ সেপ্টেম্বর ৪০টি যুদ্ধবিমানের মহড়া দেয়।