রণবীরের পর পুরনো ভারতীয় প্রথা ভাঙলেন সোনমের স্বামী আনন্দ

0
139

ভারতীয় প্রথা একে একে ভেঙে চলেছেন বলিউড সেলেব্রিটিরা৷ বিয়ের পর স্বামীর পদবি গ্রহণ না করা৷ এমনকি বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতেও না থাকা৷ যদিও এসব কেবল নায়িকাদের সিদ্ধান্ত নয়, সঙ্গে রয়েছেন তাঁদের স্বামীরাও৷

দীপিকাকে বিয়ের পর তাঁর বাড়িতেই রাখবেন৷ অর্থাৎ নিজে দীপিকার সঙ্গে দীপিকার বাড়িতে থাকবেন৷ চিরকাল ধের চলে আসা এই প্রথাকে ভাঙতে চান রণবীর৷ তাঁদের ঘনিষ্ঠ সূত্রের দাবি, দীপিকার সঙ্গে নাকি মুভ ইন করে গিয়েছেন নায়িকার বাড়িতে৷

গত বছর দীপিকা যে বাড়িতে থাকেন৷ সেই বিল্ডিংয়ের টপ ফ্লোরে আগুন লেগেছিল৷ তাতে দীপিকার ফ্ল্যাটের খানিক ক্ষতি হয়েছিল৷ পরে চটজলদি সেই ফ্ল্যাটের রেনোভেশনও করা হয়৷ দ্রুত রেনোভেট করানোর আরেকটা কারণ ছিল রনভীরের তাঁর বাড়িতে শিফ্ট করা৷

যেমন রলবীর প্রথমেই এই প্রথা ভেঙে ফেলেছেন৷ দু’দনি আগেই জানা গিয়েছিল, দীপিকাকে বিয়ের পর তাঁর বাড়িতেই রাখবেন৷ অর্থাৎ নিজে দীপিকার সঙ্গে দীপিকার বাড়িতে থাকবেন৷ চিরকাল ধরে চলে আসা এই প্রথাকে ভাঙতে চান রনভীর৷ তাঁদের ঘনিষ্ঠ সূত্রের দাবি, দীপিকার সঙ্গে রনভীর নাকি মুভ ইন করে গিয়েছেন নায়িকার বাড়িতে৷

গত বছর দীপিকা যে বাড়িতে থাকেন৷ সেই বিল্ডিংয়ের টপ ফ্লোরে আগুন লেগেছিল৷ তাতে দীপিকার ফ্ল্যাটের খানিক ক্ষতি হয়েছিল৷ পরে চটজলদি সেই ফ্ল্যাটের রেনোভেশনও করা হয়৷ দ্রুত রেনোভেট করানোর আরেকটা কারণ ছিল রনভীরের তাঁর বাড়িতে শিফ্ট করা৷

এ তো না হয় গেল রণবীর সিংয়ের কথা৷ প্রথা ভাঙার তালিকায় নাম লেখালেন আনন্দ আহুজাও৷ তবুও সবটাই অজান্তে৷ সম্প্রতি সোনম একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে তিনি একটি ওয়েস্টার্ন ওয়্যারের সঙ্গে হাতে চূড়াহ পরেছিলেন৷

বিয়ের কয়েক মাস নাকি এই চূড়াহ হাত থেকে খোলা বারন৷ সোনমের সেই পোশাকের সঙ্গে বেমানান লাগার কারণে আনন্দ তাঁকে সেগুলো হাত থেকে খুলে নিতে বলেন৷ সোনম তাঁকে এই প্রথাটির বিষয় জানান৷

আনন্দ যেহেতু বিদেশে পড়াশুনো করেছেন যার জন্য ভারতীয় প্রথার সম্বন্ধে তাঁর তেমন কোনও ধারণা নেই৷ সোনমের তাঁকে বোঝাবার পর আনন্দ তাও সোনমকে হাত থেকে চূড়াহ খুলে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন৷

প্রথার তোয়াক্কা না করার জন্য সোনম কাপুরকে এর আগে একবার ট্রোল হতে হয়েছে৷ বিয়ের পর ব্রেসলেটের মতো মঙ্গলসূত্র হাতে পরায় তাঁকে ট্রোলিং এবং সমালোচনার তোপে পড়তে হয়েছিল৷