রাজনীতির মাঠে নতুন করে ঘুরে দাড়াঁতে চায় গণফোরাম (ভিডিও)

0
106

মানিক লাল ঘোষ:

রাজনীতির মাঠে নতুন করে ঘুরে দাড়াঁতে চায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আলোচনার শীর্ষে থাকা ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন গণফোরাম।

চলতি মাসে জাতীয় কাউন্সিলে নতুন মাত্রা পাবে দলটির সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড এমন কথা জানান গনফোরাম নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী।

২০ এপ্রিল দলটির কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় দলীয় সিন্ধান্ত অমান্য করে জাতীয় সংসদে শপথ গ্রহনকারী মোকাব্বির খানের বিষয়ে আলোচনা হবে। তাকেও সুলতান মোহাম্মদ মনসুরের ভাগ্যবরণ করতে হবে বলে জানান তিনি।

১৯৯২ সালে আওয়ামীলীগের জাতীয় কাউন্সিলে দলের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য পদ হারিয়ে ৯৩ সালে গণফোরাম প্রতিষ্ঠা করেন বঙ্গবন্ধুর স্নেহভাজন হিসেবে খ্যাত সংবিধান প্রণেতাদের অন্যতম ড. কামাল হোসেন।

১৯৯৬, ২০০১ ও ২০০৮ সালে জাতীয় নির্বাচনে দলটির ফলাফল ছিল খুবই হতাশাজনক।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে বিএনপির সাথে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে রাজনীতির মাঠে নতুন করে আলোচনার ঝড় তোলেন ড. কামাল হোসেন।

রাজনৈতিক দল হিসেবে পরিচিতি পায় তার দল গনফোরাম। ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত ৮ জনের মধ্যে দুই জন নির্বাচিত হন গনফোরাম থেকে।

ঐক্যফ্রন্টর নির্বাচিত কেউ এই সংসদে যোগদান করবেন না এমন সিন্ধান্ত থাকলেও গনফোরামের সুলতান মোহাম্মদ মনসুর শপথ নেন ৭ মার্চ।

আর দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান শপথ নেন ২ রা এপ্রিল। এর মধ্যে সুলতান মোহাম্মদ মনসুরকে দল থেকে বহিস্কার হলেও ঝুলে আছে মোকাব্বির খানের ভাগ্য।

তার বিষয়ে ২০ এপ্রিল সিন্ধান্ত হবে বলে জানান দলটির নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরি। তিনি জানান ২৬ এপ্রিল জাতীয় কাউন্সিলে নতুন করে ঘুর দাড়ানোর প্রস্তুতি রয়েছে দলটির।

সংসদে যোগদান, বঙ্গবন্ধুসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বিএনপির সাথে টানাপোড়েন থাকায় গনফোরাম ভবিষ্যতে ঐক্যফ্রন্টে খাকবে কিনা এ নিয়ে সন্দিহান আওয়ামীলীগের উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন।