রাজাকার ও জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে চাই : তথ্যমন্ত্রী

0
54

তথ্যমন্ত্রী ও জাতীয় সমাজতান্ত্রীক দল জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, আমরা সবাই মিলে রাজাকার ও জঙ্গিমুক্ত দেশ গড়তে চাই। জঙ্গি দমনের যুদ্ধে আমরা মহাজোটের ছায়ার তলে থাকতে চাই। স্বাধীন দেশে রাজাকার মুক্ত করতে ১৪ দলের সাথে জোট করার জন্য শেখ হাসিনাকে প্রস্তাব দিয়েছি। রাজাকার খুনিদের বিচ্ছিন্ন করতে আওয়ামী লীগের সাথে জোট করেছি।এখনো জোটে আছি, আগামীতেও থাকব। জাসদ যাকে বুক দেয় তাকে কখনো পিঠ দেয় না।

বুধবার নারায়নগঞ্জের ডিআইটি চত্বরে জাসদের ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বাষির্কী উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ জেলা জাসদের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, আমার আঙ্গুল তুলতে হয় জিয়া ও এরশাদের দিকে। ওরাই স্বাধীন দেশে জামাতের নিজামী মুজাহিদদের এ দেশে প্রতিষ্ঠা করেছে। আর খালেদা জিয়া রাজাকারদের মন্ত্রী বানিয়েছে। দেশে একবার রাজাকারের আরেক বার মুক্তিযোদ্ধাদের সরকার হতে পারে না। আমরা চাই না এই বাংলায় কোন রাজাকারের সরকার আসুক। আবার যদি রাজাকারের হাতে ক্ষমতা আসে তাহলে বঙ্গবন্ধুর মত নেতাকে মৃত্যুবরণ করতে হবে। রাজাকার ও জঙ্গিদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দেয় সেই খালেদা কিভাবে ভালো হয়।

তিনি আরো বলেন, সংবিধান রক্ষা করতে আগামী ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সবাই নির্বাচন নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কথা বলছেন। আমি কোন নির্বাচন নিয়ে কথা বলতে চাই না। আমি রাজাকার ও জঙ্গিদের বিরুদ্ধে কথা বলতে চাই। এদেশের মাটিকে খাঁটি করতে হলে রাজাকার ও জঙ্গিমুক্ত দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আর খালেদা জিয়া সকাল বেলা এক কথা বলে আর বিকেল বেলা বলে আরেক কথা। তার কোন কথার ঠিক ঠিকানা নাই। খালেদা নির্বাচন নির্বাচন চায় না। সে নির্বাচন বানচাল করতে চায়। খালেদা জিয়া সহায়ক নির্বাচনের কথা বলে নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র করছেন। নির্বাচন হবে এবং নির্বাচনে খালেদা ও জঙ্গি রাজাকার মুক্ত রেখেই শেখ হাসিনার সাথে ঐক্য গড়ে তুলব।

মন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে আপোষ করা মানে বঙ্গবন্ধু খুনিদের রক্ষা করা, রাজাকার ও জঙ্গিদের সঙ্গে আপোষ করা। খালেদার কাছে ক্ষমতা যাওয়া মানে রাজাকার, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের কাছে ক্ষমতা যাওয়া। তাই জঙ্গি রাজাকার মুক্ত করতে হলে খালেদাকে ক্ষমতার বাহিরে রাখতে হবে। কারণ খালেদা জিয়া দেশের জন্য বিপদজনক। খালেদা জিয়া যাতে আর কোনদিন ক্ষমতায় আসতে না পারে আমদের সেই শপথ নিতে হবে।

হাসানুল হক ইনু দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, এমন কিছু করবেন না যাতে মহাজোটের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়। তিনি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, দলবাজি দুর্নীতি করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করবেন না। আমরা কোন দলবাজি দুর্নীতি চলতে দিব না।

নারায়ণগঞ্জ জেলা জাসদের সভাপদিত আব্দুস সাত্তারের সভাপতিত্বে ও মহানগর জাসদের সাধারন সম্পাদক শাহ জাহানের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শওকত রায়হান, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর্জা আনোয়ারুল হক, জাসদের মহানগর কমিটির সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহম্মেদ, বন্দর থানা জাসদের সভাপতি মাজহারুল ইসলাম মাজু, জাসদ ফতুল্লা থানা কমিটির সভাপতি সৈয়দ হোসেন, জাসদ নেতা একএম ইব্রাহিম প্রমুখ।