রাশিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ৩৭ জনের মৃত্যু

0
65

রাশিয়ার সাইবেরীয় শহর কেমেরোভোয় একটি বিপণি বিতানে বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। রুশ সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, রোববার ছুটির দিনের বিকালে এ ঘটনায় আরও অন্তত ৬৪ জন নিখোঁজ রয়েছে, যাদের মধ্যে ৪১ জনের বয়স ১৭ বছরের কম।

উইন্টার চেরি কমপ্লেক্স নামের ওই শপিং মলের উপরের ফ্লোরে যখন আগুনের সূত্রপাত হয়, অনেকেই তখন সিনেমা দেখায় মগ্ন ছিলেন।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আসা ভিডিওতে দেখা যায়, ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন পুরো এলাকা থেকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা লোকজনকে সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে। আর আগুন থেকে বাঁচার মরিয়া চেষ্টায় জানালা দিয়ে লাফিয়ে নামার চেষ্টা করছে মানুষ।
ঠিক কীভাবে ওই বিপণি বিতানে আগুন লাগে, তা এখনও স্পষ্ট নয়। এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ।

রাজধানী মস্কো থেকে তিন হাজার ৬০০ কিলোমিটার দূরে রাশিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কয়লা উৎপাদন কেন্দ্র কেমেরোভো।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, মুভি থিয়েটার, রেস্তোরাঁ, সাউনা, বোওলিং অ্যালি ও একটি চিলড্রেন জু নিয়ে ২০১৩ সালে উইন্টার চেরি কমপ্লেক্স যাত্রা শুরু করে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, বিকাল ৫টার দিকে শপিং মলের বিনোদন কেন্দ্রের অংশে কোথাও আগুনের সূত্রপাত হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কেমেরোভোর জরুরি বিভাগের উপ প্রধান ইয়েভগেনি দেদিউখিন বলছেন, প্রাথমিক যে তথ্য তাদের কাছে রয়েছে, তাতে আগুন ওই শপিং মলের প্রায় ১৫০০ বর্গমিটার এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। ধসে পড়ে দুটো সিনেমা হলের ছাদ।
৬২টি ফায়ার ইউনিট নিয়ে অগ্নি নির্বাপক বাহিনীর ২৮৮ জন কর্মীর পাশাপাশি আকাশ থেকে হেলিকপ্টার ব্যবহার করে সেখানে আগুন নেভানোর কাজ চলছে বলে জানান তিনি।

কেমেরোভো অঞ্চলের ডেপুটি গভর্নর ভ্লাদিমির চেরনভ জানান, শপিং মলের একটি মুভি থিয়েটার থেকেই পাওয়া গেছে ১৩ জনের লাশ।

ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা প্রায় একশ মানুষকে শপিং মল থেকে বের করে আনে এবং আরও ২০ জনকে বিভিন্ন ফ্লোর থেকে উদ্ধার করে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা ইতার-তাস।