“রোহিঙ্গা” শব্দ ব্যবহার না করতে পোপকে পরামর্শ

0
56

৫ দিনের সফরে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সফর করবেন ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফান্সিস। চলতি মাসেই ক্যাথলিক চার্চপ্রধান সফরে আসবেন। আগামী ২৭শে নভেম্বর থেকে তার ৫ দিনের সফর শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

প্রথমে বাংলাদেশ এবং শেষে মিয়ানমার সফর করবেন পোপ। তার এই সফরের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে নির্যাতিত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সর্বশেষ পরিস্থিতি দেখা।

তবে এই সফরে পোপকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে “রোহিঙ্গা” শব্দটি ব্যবহার না করে তার পরিবর্তে ‘রাখাইন রাজ্যের মুসলিম’ শব্দটি ব্যবহার করার জন্য।

রয়টার্সের এক খবরে বলা হয়েছে, ‘রাজনৈতিক সংবেদনশীলতার খাতিরে পোপকে “রোহিঙ্গা” শব্দটি ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছেন ক্যাথলিক চার্চসহ রাজনৈতিকভাবে প্রভাবশালী কয়েকজন ব্যক্তি।

যদিও এর আগে পোপ রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের ঘটনায় রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার করেই উদ্বেগ জানিয়েছিলেন।

অপরদিকে বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা পোপকে “রোহিঙ্গা” শব্দটি ব্যবহার না করার পরামর্শ দেওয়ার বিরোধিতা করেছে।

জানা যায়, গত ৬ নভেম্বর কফি আনান আরও তিনজন প্রভাবশালী ব্যক্তিকে নিয়ে পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

সেই সময়ে পোপকে ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি পরিহার করে শুধু ‘রাখাইন রাজ্যের মুসলিম’ শব্দ ব্যবহারের পরামর্শ দেন কফি আনান ও তার সঙ্গে থাকা ব্যক্তিরা।

মানবাধিকার কর্মীদের দাবি, রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহারে এমন পরামর্শ দেওয়া হয়েছে মিয়ামমারের শাসকদের মনঃক্ষুণ্ণের কথা চিন্তা করেই।

উল্লেখ্য যে, পোপ ফ্রান্সিস আগামী ২৭শে নভেম্বর রোহিঙ্গা শরণার্থীদের পরিস্থিতি জানতে পাঁচ দিনের সফরে আসবেন। বাংলাদেশ সফর শেষে তিনি মিয়ানমার যাবেন।