রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি তুর্কি প্রধানমন্ত্রীর আহবান

0
99

রোহিঙ্গা সংকটের রাজনৈতিক সমাধান না হওয়া পর্যন্ত জাতিসংঘসহ সকল আর্ন্তজাতিক সংস্থাগুলোকে বাংলাদেশের পাশে থাকার আহবান জানিয়েছেন তুরষ্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম।

বাংলদেশ সফরের দ্বিতীয় দিনে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অাহবান জানান। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুসহ আর্থ সামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এবং তুরস্ক একসাথে কাজ করে যাবে।

এর আগে বাংলাদেশ ও তুরস্কের মধ্যে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসা বাণিজ্য এবং পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণে সহায়তার বিষয়ে দুইটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

তিন দিনের সফরের দ্বিতীয় দিনে তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছালে সেখানে তাকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুরুতেই একান্ত বৈঠকে বসেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। স্বার্থ সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ে আলোচনা করেন তারা। পরে দুই দেশের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয় দ্বিপক্ষীয় বৈঠক।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বিনালি ইলদিরিমের উপস্থিতিতে, পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণে দুই দেশ পরসস্পরকে স্বীকৃতি এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের বিকাশ সংক্রান্ত ২টি সমঝোতা স্মারকে সই করেন বাংলাদেশ এবং তুরস্কের প্রতিনিধিরা।

পরে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুসহ দ্বিপক্ষীয় ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে বাংলাদেশ ও তুরস্ক একে অপরের সাথে সহযোগীতার ভিত্তিকে কাজ করবে ।

এসময় রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের প্রতি তুরস্কের সমর্থন জানিয়ে আন্তর্জাকিক সংস্থাগুলোকে পাশে থাকার আহবান জানান বিনালি ইলদিরিম।

এর আগে, সফররত তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম সকালে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

পরে তিনি ধানমন্ডী ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান এবং বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরির্দশন করেন। আগামীকাল কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করবেন এবং চট্টগ্রাম থেকে বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম।