শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির আড়ালে বিএনপি বড় ধরনের ষড়যন্ত্রের প্রস্তুতি নিচ্ছে: ওবায়দুল কাদের

0
50

শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির আড়ালে বিএনপি বড় ধরনের ষড়যন্ত্রের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের জনসভা সফল করতে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের  বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আগামী নির্বাচনে দলগত অবস্থান নিয়ে জবাব দেন বিএনপির নেতাদের বিভিন্ন বক্তব্যের। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের কর্মসূচি নিয়ে আশংকা প্রকাশ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির আড়ালে ষড়যন্ত্রের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন।

বিএনপি নেতাদের ‘কথার রাজনীতি’র সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি বলে দেশে গণতন্ত্র নেই। যদি গণতন্ত্রের স্বাধীনতা না থাকতো, মিডিয়ার স্বাধীনতা না থাকতো, তাহলে কী হতো?

তাদের ভাবতে হবে। তারা আজ মিডিয়ায় এসে আদালতের বিচারককে প্রতারক বলছে! রিজভী, আপনি যতো কথা বলবেন বিএনপির ভোট ততো কমবে।

 

এসময় তিনি বলেন, কিছুদিন আগে ফখরুল সাহেব বলেছিলেন, নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ এ কয়টা আসন পাবে। তিনি জ্যোতিষ বনে গেছেন। এখন আবার নতুন করে বিএনপিতে আরেকজন জ্যোতিষের আবির্ভাব ঘটেছে। এই পলিটিকাল লায়ার (মওদুদ) এখন আদালত নিয়ে ভবিষ্যৎ বাণী করতে শুরু করছেন।

বিএনপির বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগ এনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, অতীতে জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে এসেছে যে দল, তারা এখন আদালতের বিরূদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছে। বিএনপির বর্তমান রাজনৈতিক কৌশলে আশান্বিত হওয়ার কিছু নেই। অশান্তির ক্ষেত্র সৃষ্টি করতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের কৌশল নিয়েছে তারা।

তিনি বলেন, বিএনপির মদদে গড়ে ওঠা মৌলবাদী শক্তি এখনও শেষ হয়ে যায়নি। তারা আন্ডারগ্রাউণ্ডে আছে। তলে তলে আরও ভয়াবহ আক্রমণের পরিকল্পনা করছে। বিএনপি এখন শন্তিপপূর্ণ পথে হাঁটছে। এটাতে আমাদের খুশি হওয়ার কিছু নেই। এর পেছনে তারা কী পরিকল্পনা করছে সেটা নিয়ে আমাদের ভাবতে হবে।