শিক্ষকরাই আসল প্রশ্নফাঁসকারী: শিক্ষামন্ত্রী

0
105

পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের জন্য দায়ীদের বিষয়ে ভিন্নমত প্রকাশ করেছে শিক্ষামন্ত্রণালয় ও দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। সচিবালয়ে কমিশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ড. নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের জন্য শিক্ষাবোর্ড, সরকারি বিজি প্রেস, ট্রেজারি এবং পরীক্ষা কেন্দ্রের অসাধু কর্মকর্তারাই দায়ী।

অন্যদিকে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, এসব ঘটনার জন্য দায়ী অসাধু শিক্ষকরা।শিক্ষকরাই আসল প্রশ্নফাঁসকারী প্রশ্নফাঁস বন্ধে বহু ধরনের সাজেশন এসেছে বলেও তিনি শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

প্রতিটি কেন্দ্রে পরীক্ষার দিন আধাঘণ্টা আগে প্রশ্ন ছাপিয়ে পরীক্ষা নেওয়ার কথা হয়েছে। তবে  আমরা যখন বুঝলাম আসল প্রশ্নফাঁসকারী তো শিক্ষক তখন আধাঘণ্টা আগে দিয়েই লাভ কী।

শিক্ষাসংক্রান্ত নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে আজ রবিবার সচিবালয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যৌথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমি যখন আমার শিক্ষকের হাতে প্রশ্ন তুলে দেব তখন তো নিরাপদ হয়ে ঘুমাতে যাওয়া উচিত। কিন্তু কিছু শিক্ষক সে সময় প্রশ্নফাঁস করে দেন।

প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে আধাঘণ্টা আগেই শিক্ষার্থীদের পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রবেশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রে ঢোকার পর প্রশ্নপত্রের খাম খোলা হবে।

মন্ত্রী বলেন, কিছু শিক্ষক ক্লাসে না পড়িয়ে বাড়িতে বা কোচিংয়ে পড়ান। যত বড় ভালো শিক্ষক তত ক্লাসে কম পড়ান।