শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পুষ্পস্তবক অর্পণ

0
61

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধুকে হারানোর নির্মম ঘটনা না ঘটলে বাংলাদেশ অনেক আগেই আরো উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হতো। মঙ্গলবার সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষ্যে ঢাকা সেনানিবাসে খেতাব প্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারদের দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী জানান, মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যানে প্রয়োজনীয় সব ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার।

এর অাগে দিবসের শুরুতে স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী সশস্ত্রবাহিনীর সদস্যদের শ্রদ্ধা জানিয়ে ঢাকা সেনানিবাসের শিখা অনির্বাণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে সশস্ত্র সালাম নিবেদন করে তিন বাহিনীর একটি চৌকষ দল। এসময় বিউগলে করুণ সুর বাজানো হয়। কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পর সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবুল বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক, নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল নিজাম উদ্দিন আহমেদ ও বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার মার্শাল আবু এসরার নিজ নিজ বাহিনীর পক্ষে শিখা অনির্বাণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

আজ সশস্ত্র বাহিনী দিবস। এ উপলক্ষে ১৯৭১ সালের স্বাধীনতাযুদ্ধে আত্মোৎসর্গকারী সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ঢাকা সেনানিবাসের শিখা অনির্বাণে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুষ্পস্তবক অর্পণ করেছেন।

দিবসটি উপলক্ষে দেশের সব সেনানিবাস, নৌঘাঁটি ও স্থাপনা এবং বিমানবাহিনীর ঘাঁটির মসজিদগুলোতে ফজরের নামাজ শেষে দেশের কল্যাণ ও সমৃদ্ধি এবং সশস্ত্র বাহিনীর উত্তরোত্তর অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

এদিকে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালনে ঢাকার বাইরে বিভিন্ন সেনা গ্যারিসন, নৌ জাহাজ ও স্থাপনা এবং বিমানবাহিনীর ঘাঁটিতেও নানা কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষ্যে , নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশালে বিশেষভাবে সজ্জিত নৌবাহিনীর জাহাজগুলো মঙ্গলবার দুপুর দুইটা থেকে বিকেল সাড়ে চারটা পর্যন্ত সর্বসাধারণের পরিদর্শনের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বিভিন্ন কর্মসূচির পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা সেনানিবাসের কিছু সড়কে মঙ্গলবার যান চলাচল সীমিত থাকবে।

এতে বলা হয়, ঢাকা সেনানিবাসের রাস্তাগুলোতে (শহীদ জাহাঙ্গীর গেট থেকে স্টাফ রোড পর্যন্ত প্রধান সড়ক) যানজটমুক্ত রাখতে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এ জন্য সেনানিবাসে অবস্থানকারী ব্যক্তি এবং আমন্ত্রিত অতিথিদের বহনকারী যান ছাড়া সব যানবাহনচালককে মঙ্গলবার সকাল সাতটা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত এবং দুপুর ১২টা থেকে রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত সেনানিবাস এলাকা হয়ে চলাচল পরিহারের অনুরোধ করা হচ্ছে।

পরে সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন তিন বাহিনীর প্রধান।

এসময় দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সহায়তা অব্যাহত রাখার জন্য সশস্ত্র বাহিনীর প্রতি নিদের্শনা দেন রাষ্ট্রপতি। এসময় বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থানকে আরো সুদৃঢ় করতে তিন বাহিনীর ভূমিকার প্রশংসা করেন তিনি।