শীতলক্ষ্যা নদীতে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি উদ্ধার; মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭

0
154

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে মালবাহী কার্গোর ধাক্কায় ডুবে যাওয়া লঞ্চটি ১৮ ঘণ্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে। লঞ্চ দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২৭ জনে।

সোমবার (৫ এপ্রিল) দুপুর ১২টা ২০মিনিটে উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয় ডুবে যাওয়া লঞ্চটিকে তীরে টেনে তোলে। এরপরই লঞ্চটির ভেতর থেকে মরদেহ বের করতে শুরু করেন উদ্ধারকারীরা।

তাৎক্ষণিকভাবে নিহত ২৭ জনের পরিচয় জানা যায়নি। নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করছে ফায়ার সার্ভিস এবং মরদেহগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে।

এরপর দুপুর সোয়া ১টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে সংবাদ সম্মেলন করে উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত করে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। 

সংবাদ সম্মেলনে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক বলেন, ‘রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে একটি কার্গো জাহাজের ধাক্কায় লঞ্চটি ডুবে যায়। এরপর থেকে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। উদ্ধার অভিযানে অংশ নেন বিআইডব্লিউটিএ, কোস্টগার্ড, দমকল বাহিনী, নৌ ও থানা পুলিশের উদ্ধারকর্মীরা। এ ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও বিআইডব্লিউটিএ দুটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।’

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের ঢাকার সহকারী পরিচালক সালেহ উদ্দিন জানান, জেলা প্রশাসন সমাপ্ত ঘোষণা করলেও আমাদের কার্যক্রম বিকেল পর্যন্ত চলবে। ইতোমধ্যে আমরা ২৭টি মরদেহ উদ্ধার করেছি।