শেষ মুহূর্তে সূর্য অভিযান পেছাল নাসা

0
52

মরিয়ম জান্নাত: 

উড়ার ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগে একদিনের জন্য পিছিয়ে গেল নাসার সূর্যবলয়ে অভিযান। শনিবার স্থানীয় সময় ভোরে সূর্যের দিকে রওনা হওয়ার কথা ছিল নাসার মহাকাশযান পার্কার সোলার প্রোবের। এই মহাকাশযানেরই প্রথমবার সূর্যবলয় ছোঁওয়ার ক্ষমতা আছে বলে দাবি করে এসেছে নাসা।

নাসার ইঞ্জিনিয়াররা জানিয়েছেন, উড়ার কয়েক ঘণ্টা আগে মহাকাশযানে হিলিয়াম গ্যাসের সমস্যাজনিত সতর্কতামূলক ধ্বনি বেজে ওঠে। তারপরই উৎক্ষেপণ পিছিয়ে দেয় নাসা। আবহাওয়া প্রায় ৬০ শতাংশ ঠিক থাকলে এবার স্থানীয় সময় রবিবার ভোর ৩.‌৩০ মিনিট নাগাদ সূর্যের উদ্দেশ্যে উড়বে পার্কার সোলার প্রোব।

মহাকাশবিজ্ঞানীরা বলছেন, সূর্যের সব চেয়ে রহস্যময় স্থান হচ্ছে তার করোনা বা বলয়। নক্ষত্রে পৃষ্ঠদেশের থেকেও এই বলয়ের তাপমাত্রা প্রায় ৩০০ গুণ বেশি। এর মধ্যে আছে শক্তিশালী প্লাজমা এবং শক্তিকণা যা পৃথিবীসহ আমাদের সৌরমণ্ডলে জিওম্যাগনেটিক সৌরঝড় তৈরি করে।

পার্কার সোলার প্রোব বলয়ের মধ্যে ঢুকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাবে। যার ফলে সৌর ঝড় মোকাবিলায় সুবিধা হবে বিজ্ঞানীদের। এই মহাকাশযানই সূর্যের পৃষ্ঠদেশের প্রায় ৬.‌১৬ কিলোমিটার পর্যন্ত পৌঁছাবে। সূর্যের এতো কাছে এই গ্রহের আর কোনও মহাকাশযান পৌঁছায়নি।

মহাকাশযান সাড়ে চার ইঞ্চি পুরু অতিরিক্ত শক্তিশালী তাপ নিরোধক দিয়ে মোড়া আছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, সূর্যের যে অঞ্চলে তাপমাত্রা কয়েক মিলিয়ন ডিগ্রি ফারেনহাইট থাকবে, সেখানেও ওই নিরোধকটি মাত্র ২৫০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট বা ১৩৭১ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত গরম করতে পারবে সূর্যের রশ্মি।