সংবিধানের সপ্তদশ সংশোধনী ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা

0
166

সর্বোচ্চ ১৪ বছরের জেল এবং ১ কোটি টাকার জরিমানার বিধান রেখে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এই অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ সহ কয়েকটি ধারা বিলুপ্ত করে নতুনভাবে সাজানো হয়েছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রীপরিষদের নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে।

সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের মেয়াদ আরো ২৫ বছর বৃদ্ধি করে সংবিধানের সপ্তদশ সংশোধনী আইন ২০১৮ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে আইনগুলো সর্ম্পকে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটির চূড়ান্ত অনুমোদনের মধ্য দিয়ে তথ্য প্রযুক্তি আইনের সমালোচিত ৫৭ধারাটি বিলুপ্ত হলো বলে জানান মন্ত্রীপরিষদ সচিব ।

নতুন আইন অনুযায়ী, বেআইনীভাবে অনুপ্রবেশ করে ক্ষতি সাধন, মুক্তিযুদ্ধ, জাতির পিতা এবং মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে প্রপাগন্ডাসহ সাইবার সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ ১৪ বছরের জেল, ১ কোটি টাকা জরিমান অথবা উভয় দন্ডের বিধান রাখা হয়েছে।

এছাড়া অপরাধ অনুযায়ী আইনটিতে বিভিন্ন মেয়াদের শাস্তি ও আর্থিক জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে বলেও জানান মোহাম্মদ শফিউল আলম।

৫৪ এর ক এ ১৭, ১৯, ২১, ২২, ২৩, ২৪, ২৬, ২৭, ২৮, ৩০, ৩১, ৩২, ৩৩ ও ৩৪ তম ধারা গুলোকে আমলযোগ্য জানিয়ে জামিন অযোগ্য এবং ৫৪ এর খ এ ২০, ২৫, ২৯, ও ৪৮ নং ধারাগুলোকে অধর্তব্য উল্লেখ করে জামিন যোগ্য বলে জানান মন্ত্রী পরিষদ সচিব।

এদিকে তথ্য পযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা মোতাবেক পূর্বে দায়েরকৃত মামলাগুলো আগের নিয়ম অনুযায়ী চলবে বলেও জানান মন্ত্রীপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত ৫০টি নারী আসনের মেয়াদ আরো ১৫ বছর বাড়িয়ে সংবিধানের সপ্তদশ সংশোধনীর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সংরক্ষিত এসব আসনের মেয়াদ চলতি মেয়াদেই শেষ হওয়ার কথা ছিলো। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে এই অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব, প্রধানমন্ত্রীর সিনিয়র সচিব, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য সচিবসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।