সঠিকভাবে শ্বাসপ্রশ্বাসের ওপরও নির্ভর করে সুস্থতা

0
76

স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ আর নিয়মিত শরীরচর্চার পাশাপাশি সবল থাকতে সঠিকভাব নিঃশ্বাস নেওয়াও দরকার। ভাবছেন দম নিতে আর ফেলতে সঠিক আর বেঠিক কী? বেশ তো শ্বাস নিচ্ছেন আর ফেলছেন। তবে স্বাস্থবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয় শ্বাসপ্রশ্বাসের সঠিক নিয়ম মেনে চললে শরীর হবে সতেজ।

সেই নিয়মগুলো হল-

* মুখ দিয়ে শ্বাস নেওয়া ও ছাড়ার পরিবর্তে নাক ব্যবহার করে শ্বাস নিন। নাক দিয়ে শ্বাস গ্রহণ করা হলে বাতাসে মিশে থাকা ধুলিকণা ও অন্যান্য ময়লা পরিশোধিত হয়। ফলে মুখের তুলনায় কম ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া শ্বাসের মাধ্যমে দেহে ঢোকে। এভাবে শ্বাস নিতে অসুবিধা হলে জিহ্বা দিয়ে মুখ আটকে শ্বাস নিন।

* বুকের পেশি নয় বরং অন্ত্রের ভেতর থেকে টেনে আট শতাংশ শ্বাস নিন। এতে ফুসফুস উপকৃত হয় এবং এর কার্যকারিতা বাড়ে। এটা পেটের বিভিন্ন অঙ্গ যেমন- যকৃত, অগ্ন্যাশয় এবং অন্ত্র সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এই পদ্ধতিতে শ্বাস নিলে তা পেটের আকার ঠিক রাখে, মানে রাখে সমতল। এছাড়াও এটা কাঁধ ও গলায় আরাম দেয়; ব্যথা মুক্ত রাখে।

* ছন্দ ও আরামের সঙ্গে নিঃশ্বাস নেওয়ার চেষ্টা করুন। এটা কেবল চাপ কমাতেই সাহায্য করে না বরং অক্সিজেনের মাত্রা বাড়ায় এবং রক্তচাপের ভারসাম্য রক্ষা করে হৃদয় সুস্থ রাখে। শ্বাস গ্রহণের সময় শান্ত ও সচেতন হওয়ার চেষ্টা করুন। এই পদ্ধতি মেনে চললে নাক ডাকা ও কাশির সমস্যা দূর করা সম্ভব।

* নিঃশ্বাস গ্রহণের তুলনায় বেশি সময় নিয়ে শ্বাস ত্যাগ করুন। যদি দুই সেকেন্ড শ্বাস গ্রহণ করেন তাহলে চার সেকেন্ড সময় নিন শ্বাস ত্যাগ করতে। কাজের মাঝে হয়ত এটা করা বেশ কষ্টকর অথবা পরিবারের সঙ্গে ব্যাস্ত দিন কাটাতে গিয়ে এটা করার কথা মনে থাকবে না। তাই প্রতিদিন সকালে কমপক্ষে ১৫ মিনিট সময় এই কাজে ব্যয় করুন। এভাবে অভ্যাসে পরিণত হবে। সঠিক দেহভঙ্গি রক্তে অক্সিজেনের সরবারহ বাড়াতে সাহায্য করে।