সন্তানের যে ছবিগুলো কখনওই পোস্ট করা উচিত নয়

0
529

সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা নিরন্তর ছবি পোস্ট করি। বাইরে ঘুরতে যাওয়া থেকে শুরু করে নিজের সন্তানের ধীরে ধীরে বড় হয়ে ওঠা— ছবির পর ছবি, বাদ যায় না কিছুই।

জানেন কি, আপনারই পোস্ট করা বেশ কিছু ছবি কব্জা করে নেয় সাইবার হানাদাররা। পরে সেগুলোই ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়ে নানা সাইটে। সচেতন থাকতে দেখে নিন সন্তানদের কোন ছবিগুলো প্রকাশ্যে পোস্ট দেওয়া উচিত নয়।

শিশুর স্তন্যপানের ছবি একেবারেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করবেন না। স্তন্যপান করানোর মধ্যে কোনও অনৈতিক কিছু নেই।

তবে বেশ কিছু সোশ্যাল সাইট এই ধরনের ছবি প্রোফাইল থেকে হ্যাক করে নেয়, পরে সেগুলো ভিডিও আকারে পর্ন ওয়েবসাইটগুলোতে ছড়িয়ে দেয়।

বয়স এক মাস হোক বা এক বছর, কখনওই আপনার সন্তানের নগ্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করবেন না। জানেন কি, এই সব ছবি নিয়ে শিশুদের উপর পর্নোগ্রাফি ফিল্ম তৈরি করে সাইবার অপরাধীরা? বর্তমানে শিশুদের উপর যৌন নির্যাতন, ধর্ষণের ঘটনা সামাজিক ব্যাধি হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই সচেতন থাকুন।

আপনার সন্তানকে তো প্রায়ই পার্কে বা খেলার মাঠে নিয়ে যান। সমবয়সীদের সঙ্গে তার খেলাধূলা, হুটোপাটির ছবিও পোস্ট করেন।

এমন কোনও ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় দেবেন না যেখানে আপনার সন্তানের অন্তর্বাস দেখা যাচ্ছে।

ছেলে হোক বা মেয়ে এই ধরনের ছবি অ্যাকাউন্ট থেকে হাতিয়ে নেওয়ার জন্য বসে থাকে হ্যাকাররা।

সদ্য রজঃস্বলা কিশোরীকে ভবিষ্যতে মা হিসেবে স্বীকৃতি দানের জন্য দক্ষিণ ভারতের নানা জায়গায় পালিত হয় ‘ঋতুকালা’ বা ‘ঋতুশুদ্ধি’ অনুষ্ঠান।

কিশোরীদের শাড়ি ও নানা অলঙ্কার পরিয়ে তাদের বিভিন্ন ভঙ্গিমার ছবির ক্যামেরাবন্দি করা হয়।

বিশেষজ্ঞেরা জানাচ্ছেন, এই ধরনের অনুষ্ঠানে কিশোরীদের এমন কোনও ভঙ্গিমার ছবি পোস্ট করবেন না যা কোনও রকম অশ্লীলতাকে প্রশ্রয় দেয়।

ফেসবুক খুললেই প্রায়ই দেখা যায় বাচ্চাদের নগ্ন করে গোসল করানোর ছবি পোস্ট করছেন অভিভাবকরা।

সেই সব ছবিতে আবার বিস্তর লাইক এবং নানা ধরনের কমেন্ট-পাল্টা কমেন্ট।

বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, ছবি দিন কিন্তু শিশুদের অনাবৃত শরীরের নয়।

আপনার সন্তান ধীরে ধীরে বড় হচ্ছে? ছোট্ট ছোট্ট হাতে নিজের পোশাক নিজেই বদলাতে শিখে গিয়েছে? আপনিও খুব খুশি হয়ে সেই পোশাক বদলানোর ছবি পোস্ট করে দিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

জানেন তো, পরোক্ষে আপনার সন্তানকেই ঠেলে দিচ্ছেন বিপদের মধ্যে। এই সব ছবি রমরম করে বিক্রি হয় নানা পর্নোগ্রাপি সাইটে।

রণবীর কাপূরের ‘সাওয়ারিয়া’ ছবির কথা মনে আছে? গানের তালে তালে টাওয়াল জড়ানো রণবীরের নাচ আপনিও উপভোগ করেছেন।

কিন্তু বলিউড ছবি দেখে নিজের সন্তানের এমন কোনও ছবি কখনওই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করবেন না।

ছবিতে কমেন্ট হয়তো অনেক পাবেন, কিন্তু এই ছবিগুলিই বাছাই হয়ে চলে যাবে নানা পর্ন সাইটে।

দেখা গিয়েছে খুব বেশি সতর্ক থাকতে গিয়ে অভিভাবকরা আবার সন্তানদের সব সময় নিজেদের সঙ্গেই ছবি তুলতে বাধ্য করেন।

মনোবিদরা জানাচ্ছেন, এমন করলে শিশুদের মনের উপর প্রভাব পড়ে। আপনি নিজে সতর্ক থাকুন। আর সন্তানদেরও স্বনির্ভর হতে দিন।