সবচেয়ে বড় জেট ইঞ্জিনের পরীক্ষা চালালো বোয়িং

0
86

বিশ্বের সবচেয়ে বড় জেট ইঞ্জিনের পরীক্ষা চালিয়েছে বোয়িং। ক্যালিফোর্নিয়ার ভিক্টভিল থেকে এই ইঞ্জিনের সাহায্যে সফলভাবে আকাশে ওড়ে বোয়িংয়ের পরিবর্তিত ৭৪৭ প্লেন। পরবর্তীতে বোয়িংয়ের ৭৭৭এক্স ‘মেগাপ্লেন’-এ ব্যবহার করা হবে জেনারেল ইলেক্ট্রিক-এর তৈরি জিই৯এক্স ইঞ্জিনটি।

ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিরর-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২০ সাল থেকে বাণিজ্যিক ফ্লাইটে নতুন এই ইঞ্জিনটি ব্যবহার করা হবে।

জিই৯এক্স-এর সঙ্গে ছোট ইঞ্জিনও ব্যবহার করা হয়েছে যাতে যাত্রী এবং ক্রুদের জীবনের ঝুঁকি না নিয়ে প্লেনটিr পরীক্ষা চালানো যায়। আগের বছরই ইঞ্জিনটি পরীক্ষা করার কথা ছিল জেনারেল ইলেক্ট্রিক-এর।

৪.৪ মিটার নিকেলের মধ্যে ৩৪০ সেন্টিমিটার ব্যাসার্ধের বিশাল ফ্যান রয়েছে ইঞ্জিনটিতে। বোয়িং ৭৪৭-এর বাম পাখায় ইঞ্জিনটি লাগিয়ে চার ঘন্টা ওড়ানো হয়েছে।

সব পরীক্ষা শেষ হলে বোয়িংয়ের নতুন ৭৭৭এক্স প্লেনে ব্যবহার করা হবে এই ইঞ্জিন। তৈরির পর এটি হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুই ইঞ্জিনের প্লেন, যার পাখার দৈর্ঘ্য হবে ৭১.৮ মিটার এবং ৪০৬টি আসন থাকবে এতে।

জিই এভিয়েশন-এর জিই৯এক্স প্রকল্পের মহাব্যবস্থাপক টেড ইংলিং বলেন, “জিই৯এক্স এবং ভিক্টরভিল-এর দল ইঞ্জিনটির ফ্লাইট পরীক্ষার জন্য কয়েকমাস কাজ করেছে এবং প্রথম সফল ফ্লাইটের মাধ্যমে আজকে তাদের পরিশ্রম স্বার্থক হয়েছে।”

“আজ থেক জিই৯এক্স-এর ফ্লাইট পরীক্ষার শুরু হয়েছে যা কয়েক মাস চলবে, যাতে ফ্লাইটের বিভিন্ন সময়ে কোন উচ্চতায় ইঞ্জিনটি কেমন কার্যকারিতা দিচ্ছে তার ডেটা সংগ্রহ করতে পারি,” যোগ করেন ইংলিং।

উচ্চমানের ৭৭৭-৯ মডেলের বোয়িং প্লেনের মূল্য পড়বে ৩৯ কোটি ডলার। আর আকারে কিছুটা ছোট ৭৭৭-৮-এর দাম হবে ৩৬ কোটি ১১ লাখ ডলার।