সালমান খানকে নিয়ে যা বলেছিলেন ঐশ্বরিয়া

0
117

এক সময় চুটিয়ে প্রেম করেছেন সালমান খান ও ঐশ্বরিয়া রাই। সেটা এখন অতীত। কিন্তু সেই অতীতের অনেক ঘটনা আবার নতুন করে সামনে এনেছে ভারতীয় গণমাধ্যম। ঘটা করে ব্রেকআপের ঘোষণা দেওয়ার সময় ঐশ্বরিয়ার দেওয়া অভিযোগ নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করেছে জি নিউজ।

খবরে বলা হয়, ২০০২ সালে সালমান খানের সঙ্গে ব্রেকআপ হয়ে যায় ঐশ্বরিয়া রাইয়ের। বিচ্ছেদের পর রীতিমত সংবাদ সম্মেলন করে সাবেক এই বিশ্ব সুন্দরী জানান, সালমানের সঙ্গে আর কোনো সম্পর্ক নেই তার। সালমান যেভাবে তার উপর শারীরিক এবং মানসিকভাবে অত্যাচার চালিয়েছেন বিচ্ছেদের মাধ্যমে সেসব থেকে মুক্তি পেলেন। কিন্তু, সালমানের মারের দাগ এখনও তাঁর শরীর থেকে মুছে যায়নি।

শুধু তাই নয়, শাহরুখ খান হোক কিংবা অভিষেক বচ্চনসহ অভিনেতাদের সঙ্গে সব সময়ই ভাল সম্পর্ক তাঁর। কিন্তু, অযথা সব বিষয়ে সন্দেহ করতেন সালমান। যা থেকেই তাদের মধ্যে অশান্তির সূত্রপাত। যা আর মেনে নেওয়া যাচ্ছিল না বলেই সালমানের সঙ্গে বিচ্ছেদের পথ বেছে নেন বলে জানান ঐশ্বরিয়া। যদিও বলিউড সুন্দরীর সব অভিযোগ অস্বীকার করেন সালমান। কখনও কারও গায়ে হাত তোলেননি বলেও জোর গলায় দাবি করেন বলিউড সুপারস্টার।

তবে সালমান যা-ই বলুন না কেন, ঐশ্বরিয়া রাই কোনো কিছুকেই পাত্তা দেননি। তিনি বলেন, নিজের আত্মসম্মান অনেক বড় বিষয় তাঁর কাছে। আত্মসম্মান বাদ দিয়ে কোনও কিছু করবেন না। তাই সালমানের সঙ্গে তাঁর কাজ শেষ। পাশাপাশি সালমানের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক যেন দুঃস্বপ্নের মত ছিল। ওই সম্পর্কের ইতি টানতে পেরেছেন বলে তিনি খুশি।