সিএনএন এর রিপোর্ট আমার জীবন বিধ্বস্ত করে দিয়েছে : মর্গান ফ্রিম্যান

0
64

অভিযোগ অস্বীকার করে এক বিবৃতিতে ক্ষমা চেয়েছেন হলিউড অভিনেতা মর্গান ফ্রিম্যান।

গত ২৪মে সংবাদমাধ্যম সিএনএন ৮০ বছর বয়সী প্রবীণ অভিনেতা মর্গান ফ্রিম্যানের বিরুদ্ধে অভব্য আচরণ এবং শ্লীলতাহানির অভিযোগের এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

সিএনএন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ১৬ জন মর্গানের অভব্য আচারণের অভিযোগ করেন। এদের মধ্যে আটজন নারী অস্কারজয়ী এই অভিনেতার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলেছেন।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে হলিউড অভিনেতা মর্গান ফ্রিম্যান বলেন, “বৃহস্পতিবারের এই রিপোর্ট আমার ৮০ বছরের জীবনকে বিধ্বস্ত করে দিয়েছে।”

ফ্রিম্যান আরও বলেছেন, “একটা বিষয় আমি স্পষ্ট করে দিতে চাই, আমি কোনও মহিলাকে যৌন হেনস্থা করিনি, যৌনতার বিনিময়ে কারোর কর্মসংস্থানেরও ব্যবস্থা করিনি। আমার বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।”

তিনি বলেন, “আমার আচরণে কোনোভাবে কেউ অসম্মানিত হয়ে থাকলে আমি ক্ষমা চাইছি।”

সিএনএন কে দেওয়া সাক্ষাতকারে একজন অভিযোগ করেছেন, ২০১৫তে ‘গোয়িং ইন স্টাইল’ চলচ্চিত্র তৈরির সময় স্টুডিওতে অভব্য আচরণ করেন ফ্রিম্যান। তিনি দাবি করেছেন, বিভিন্ন সময় কাজের ফাঁকে কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত করতেন ফ্রিম্যান।

তার আরও অভিযোগ, শরীরের নানা জায়গায় আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করতেন এই বর্ষীয়ান অভিনেতা। একবার অন্তর্বাস পরেছি কিনা তা জানার জন্য স্কার্ট তোলারও চেষ্টা করেছিলেন ফ্রিম্যান।

প্রকাশ্যে এমন অভব্য কাজের জন্য সহকারী অভিনেতা অ্যালান সেই সময় প্রতিবাদ করেছিলেন।

এর আগেও ২০১২ সালে ‘নাউ ইউ সি মি’ ছবির প্রোডাকশনের এক মহিলাকর্মী মর্গানের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ করেছিলেন।