সিটি নির্বাচন ঘিরে উৎসবমুখর গাজীপুর

0
107

শারমিন আজাদ:

গাজীপুরে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে উৎসবমুখর আমেজে প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। জনগণের প্রত্যাশার সাথে নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির মিল নিয়েই জনসংযোগ করছেন বড় দলের মেয়র প্রার্থীরা।

ভোটারদের অভিযোগ, নির্বাচনের পর কথা আর কাজে মিল থাকে না প্রার্থীদের। ৫ম দিনের মতো চলছে গাজীপুরে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রচারণা।

এদিন, বড় দুই দলের মেয়র প্রার্থী জনসংযোগ করেন টঙ্গীর বিসিক নগরীতে। শ্রমিক ঘনবসতির এ এলাকায় ভোটারদের দাবি পূরণের প্রতিশ্রুতি দেন প্রার্থীরা।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাকচ করেন কালো টাকা ছড়ানোর অভিযোগ। তারা পাল্টা অভিযোগ দেন বিএনপির নেতাকর্মীরা টাকা দিচ্ছে ভোটারদের হাতে।

এজন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা ঢাকার বাইরে থেকে লোক ভাড়া করে আনছে। তবে মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম আরো বলেন, ভোটাররা জেনে শুনেই সৎ ব্যক্তিকে ভোট দেবেন।

ভোটের শেষেই দেখা যাবে কে জয়ী, জোর দিয়ে বললেন তিনি। টঙ্গীর ৩ টি ওয়ার্ডে জনসংযোগ করেন তিনি।

টঙ্গী এলাকায় প্রচারণায় নেমে বিএনপির মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার বললেন, যেকোন পরিস্থিতিতে নির্বাচনে অংশ নেবে তার দল। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচনের দুই দিন আগেও তিনি সেনাবাহিনী চাইবেন।

আরো বলেন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির জয় কিংবা পরাজয়, দুটিতেই লাভ, কোন লোকসান নেই। তবে জনগণের আস্থা আছে বিএনপির উপর মনে করেন তিনি।

এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন রাজনৈতিক ক্যারিয়াওে অনেক ছোট অবস্থান থেকে তিনি উঠে এসেছেন। আর তাই তিনি বুঝবেন জনগণের চাওয়া পাওয়ার লেনদেনের হিসাব। সেই ছক নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে তার দল।

নির্বাচনের বাকি আছে আরো সোয়া দুই সপ্তাহ। এর মধ্যে আচরণবিধি মেনে প্রচারণা চালাবেন মেয়র ও কাউন্সিলর পদপ্রার্থীরা, এমন প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।