মিয়ানমারে ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোকে অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর

0
82

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারে ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোকে অনুরোধ জানিয়েছেন সিপিএ ভাইস প্যাট্রন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অব্যাহত হত্যা, নির্যাতন ও নিপীড়নের কারণে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণে আশ্রয় দেয়া হয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। দুপুরে ৬৩তম সিপিএ সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করে তার দল ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে দায়িত্ব পালন করছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের (সিপিএ) ৬৩তম সম্মেলন আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ৫২ দেশের ৪৪ জন প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো আয়োজন হলো (সিপিএ) সম্মেলনের।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করছেন সিসিএ-এর চেয়ারপারসন ও জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। সম্মেলনে সিপিএ-এর চিফ প্যাট্রন ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ।

সিপিএ সম্মেলনটি সুন্দরভাবে অনুষ্ঠানের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে এ বছরের মার্চে অনুষ্ঠিত ইন্টার পাল্টামেন্টারিয়ান ইউনিয়নের (আইপিইউ) সম্মেলনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাচ্ছে আয়োজক প্রতিষ্ঠান দু’টি। সংসদ ভবনসহ ঢাকাকে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। সংসদ ভবনের দক্ষিণে অবস্থিত সবুজ মাঠে নির্মাণ করা হয়েছে বিশাল মঞ্চ। বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার রঙে আলোকিত করা হয়েছে উঠেছে পুরো সংসদ ভবন। সংসদ ভবন ও তার আশপাশের রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে আলোকসজ্জা করা হয়েছে। ডিজিটাল ব্যানারে ছাপিয়ে গেছে সম্মেলন স্থলের আশপাশের এলাকা।

সিপিএ সম্মেলনে কমনওয়েলথভুক্ত ৫২টি দেশের মধ্যে ৪৪টি দেশের প্রতিনিধিরা সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন বলে সংসদ সচিবালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এসব দেশের জাতীয় ও প্রাদেশিক সংসদের সমন্বয়ে গঠিত ১৮০টি ব্রাঞ্চের মধ্যে ১১০টি ব্রাঞ্চের স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকারসহ ৫ শতাধিক পার্লামেন্ট সদস্য অংশ নিয়েছেন।

এবারের সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে, ‘কনটিনিউনিং টু এনহ্যান্স দ্য হাই স্ট্যান্ডার্ড অব পারফরমেন্স অব পার্লামেন্টারিয়ানস’। এই সম্মেলনে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল অংশ নিচ্ছে।

এদিকে সম্মেলনের ‍উদ্বোধন সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হলেও এর বিভিন্ন সেশনগুলো অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি)। এর আগে গত ১ নভেম্বর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত হোটেল রেডিসনে সিপিএ-এর নির্বাহী কমিটির বৈঠক ও সিপিএ স্মল ব্রাঞ্চের সম্মেলনসহ বেশ কয়েকটি অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামী ৮ নভেম্বর শেষ হবে এই সম্মেলন। এবারের সম্মেলনের মাধ্যমে মেয়াদ শেষ হচ্ছে সংস্থাটির বর্তমান চেয়ারপারসন ও স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর। আগামী ৭ নভেম্বর সিপিএর নতুন চেয়ারপাসন নির্বাচন করা হবে।