সৌদি আরবে গ্রেফতার ২৪ হাজার বিদেশি 

0
64

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিশ্বের আলোচিত দেশের তালিকায় রয়েছে সৌদি আরব। প্রথমে নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি পরে স্টেডিয়ামে বসে নারীদের খেলা দেখার সুযোগ দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় আসে সৌদি আরব।

এরপর রাজ পরিবারের সদস্যদের গ্রেফতার করে আলোচনায় আসে মধ্যপ্রাচের গুরুত্বপূর্ণ দেশ সৌদি আরব। এবার আলোচনায় আসলো ২৪ হাজার বিদেশি আটক করে।

ভিসা, বসবাস ও শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে তিনদিনে ২৪ হাজার বিদেশিকে আটক করেছে সৌদি সরকার। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেট জানিয়েছে, ভিসার শর্ত ভঙ্গ হয়েছে এমন ২৪ হাজার ব্যক্তিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আটক করেছে।

সৌদি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ১৫ হাজার ৭০২ জনকে আটক করা হয়েছে বসবাসের আইন (আকামা) লঙ্ঘন করেছেন। ৩ হাজার ৮৮৩ জন সীমান্ত নিরাপত্তা আইন এবং ৪ হাজার ৩৫৩ জনকে শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে আটক করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের ৪২ শতাংশকেই মক্কা নগরী থেকে আটক করা হয়।

বাকিদের মধ্যে রাজধানী রিয়াদ থেকে ১৯ শতাংশ, আসির প্রদেশ থেকে ১১ শতাংশ, জাযান থেকে ৬ শতাংশ এবং পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশগুলো থেকে ৫ শতাংশকে আটক করা হয়েছে।

ভিসার শর্ত লঙ্ঘন করেছেন এমন বিদেশিদের পরিবহন সুবিধা দেওয়া বা অন্য সুযোগ দেওয়ার অভিযোগে ২৫ সৌদি নাগরিককেও আটক করা হয়েছে। অন্যান্য আটক বিদেশিরা কোন কোন দেশের নাগরিক তার কিছু বলা হয়নি।

গত মার্চে সৌদি আরবে অবৈধভাবে বসবাস করা বিদেশিদের বৈধ কাগজপত্র সংগ্রহ করতে ৯০ দিনের সময় বেঁধে দেয়া হয়। তখনকার সরকারি ঘোষণায় বলা হয়, অনুমতি ছাড়া বসবাস, আকামা বা সরকারি অনুমতি না নিয়ে কাজ করা এবং সৌদি আরবে অবৈধ অনুপ্রবেশের মতো অপরাধের ক্ষেত্রে সাধারণ ক্ষমা প্রযোজ্য হবে।

এই সময়ের মধ্যে অবৈধ ব্যক্তিরা কোনো শাস্তি ছাড়াই নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। সে সময় ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে।