স্বার্থান্বেষি মহল রংপুরে বর্বোরচিত হামলা চালিয়েছে: ওবায়দুল কাদের

0
87

জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি স্বার্থান্বেষি মহল চট্টগ্রামের রামু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ও রংপুরের ঠাকুরবাড়িতে পাশবিক ও বর্বোরচিত হামলা চালিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সমপাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রোববার রংপুর ফেসবুকে ধর্ম অবমাননার স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা, ভাঙচুর ও বাড়ি-ঘরে আগুন দেয়ার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

রংপুরে যেদিন হামলা হয়েছে ওইদিন থেকেই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আওয়ামী লীগ ক্ষতিগ্রস্তের পাশে রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের ঘরবাড়ি নির্মাণের পাশাপাশি খাট-বিছানা, হাড়ি-পাতিলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় সকল জিনিসপত্র সরবরাহ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই আমরা যার যার দায়িত্ব পালন করছি।

তিনি আরো বলেন, যারা এই পাশবিক হামলা করে সনাতন ধর্মালম্বীদের ঘর-বাড়ি পুড়ে দিয়েছে, মন্দিরে আগুন দিয়েছে তারা যারাই হোক তাদেরকে এবং ঘটনা নেপথ্যে যারা আছে তারা যত শক্তিশালী হোক না কেন সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ঘটনার নেতৃত্বদানকারী জেলা পরিষদের উপসকারী প্রকৌশলী ফজলার রহমানকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার সঙ্গে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী জড়িত এবং সরকারের মদদ ছাড়া এ ঘটনা ঘটতে পারে না বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের উত্তরে তিনি বলেন, বিএনপি মিথ্যাচার করে। তারা মিথ্যাচারের ভাঙ্গা রেকর্ড বার বার বাজায়।

তিনি মির্জা ফকরুলের মিথ্যাচারের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, গতকাল শনিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নাগরিক সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপির’ মহাসচিব মির্জা ফকরুল বলেন, স্কুল, কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, অফিস, আদালত, ব্যাংক-বিমা থেকে জোর করে বাধ্য করে সমাবেশে লোক আনা হয়েছিলো। অথচ আমাদের সমাবেশ হয়েছে সরকারি ছুটির শনিবার।

পরে তিনি ব্রাহ্মণপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক সম্প্রতি সমাবেশে রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মমতাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সমপাদক বলেন, যারা সনাতন ধর্মালম্বীদের উপর হামলা করে প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে আমাদের বিরাজমান দুসম্পর্ক বিনষ্টের অপচেষ্টা করেছে।

তাদের চেষ্টা সফল হবে না। এখানকার ক্ষতিগ্রস্থ সনাতন ধর্মালম্বীরা আতংকিত, উদ্নিগ্ন এবং উত্কণ্ঠিত। তাদেরকে প্রশাসনিক, রাজনৈতিক ও মানবিক সহযোগিতা দিতে এসেছি। ভাষণ দিতে আসিনি, ফুলে নিতে আসিনি বলে যোগ করেন তিনি।