স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রিত মেশিনগান ব্যবহার করে ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যা করা হয়

0
356

‘আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের’ সাহায্যে স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রিত মেশিন গানের সাহায্যে ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফখরিজাদেহকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে ইরান।

রবিববার দেশটির রেভ্যুলেশনারি গার্ডের ডেপুটি কমান্ডার স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের কাছে এ দাবি করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এএফপি।

ইরানের বিপ্লবী গার্ডি বাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার আলি ফাদাভি এক বিবৃতিতে বলেন, স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রিত ওই মেশিন গান থেকে মোট ১৩টি গুলি ছোড়া হয়েছে। হামলাকারীরা খুবই সুক্ষ্মভাবে এই হামলা চালিয়েছে। গাড়িতে ফাখরিজাদেহের মাত্র কয়েক ইঞ্চি দূরেই ছিলেন তার স্ত্রী। কিন্তু তিনি হামলা থেকে বেঁচে গেছেন এবং গুলি এসে ফাখরিজাদেহকেই আঘাত করেছে। তিনি বলেন, সে সময় ১১টি গাড়ি ফাখরিজাদেহ এবং তার স্ত্রীর নিরাপত্তায় ছিল।

শীর্ষ এই পরমাণু বিজ্ঞানীর মৃত্যুর পর থেকেই তার মৃত্যু নিয়ে নানা রকম তথ্য সামনে আসছে। একটি পিকআপ থেকে রিমোট কন্ট্রোল মেশিন গান দিয়ে যে বা যারা এই হামলা চালিয়েছে তারা ইতোমধ্যেই ইরান ছেড়ে পালিয়েছে বলেও বেশ কিছু গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে।

ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচির স্থপতি হিসেবে পরিচিত ছিলেন পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদেহ। গত ২৭ নভেম্বর ১১ গার্ডের নিরাপত্তা বহর নিয়ে ইরানের রাজধানী তেহরানের পাশের একটি মহাসড়ক হয়ে যাওয়ার সময় গুলিতে নিহত হন শীর্ষ এই বিজ্ঞানী।

প্রথম থেকেই এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ইরানের শীর্ষ নেতারা ইসরায়েলকে দায়ি করে আসছেন। যদিও ইসরায়েলের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। তবে ২০১৮ সালে ইরানের বিষয়ে একটি পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে করা একটি অভ্যন্তরীণ বৈঠকে ফাখরিজাদেহের বিষয়ে সতর্ক করেছিলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। এছাড়া ফাখরিজাদেহকে হত্যায় ইসরায়েলি প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে বলেও দাবি করেছে ইরান। সে কারণেই সন্দেহের তীর এখন ইসরায়েলের দিকেই।

ফাখরিজাদেহ একটি বুলেটপ্রুফ গাড়িতে করে তার স্ত্রীকে নিয়ে কোথাও যাচ্ছিলেন। সে সময় নিরাপত্তাবাহিনীর বেশ কিছু গাড়ি তাদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত ছিল। তখন একটি গাড়িতে বুলেট লাগার শব্দ হয়। তিনি তখন কী ঘটেছে তা দেখার জন্য বের হন। তিনি গাড়ি থেকে বের হওয়ার পর পরই একটি রিমোট কন্ট্রোলড বন্দুক থেকে গুলি ছোড়া হয়।

ফাখরিজাদেহের গাড়ি থেকে ১৫০ মিটার দূর থেকে তাকে গুলি করা হয়েছিল। তাকে কমপক্ষে তিনবার গুলি করা হয়। তার দেহরক্ষীকেও গুলি করা হয়। প্রায় তিন মিনিট ধরে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।