হলে গিয়ে সিনেমা দেখতে পারবেন সৌদিয়ানরা

0
73

কয়েক মাস ধরে সৌদি আরবে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত দেখা যাচ্ছে যা কট্টর রক্ষণশীলতার ছাপিয়ে গেছে। এর মধ্যে একটি হলো নারীদের গাড়ি চালানোর সিদ্ধান্ত।

এর বাইরে নারীদের স্টেডিয়ামে গিয়ে খেলা দেখা। এবার সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখার সুযোগ করে দেওয়ার ঘোষণা আসলো। বিদেশি গিয়ে সিনেমার জন্য অনেক অর্থ ব্যয় করে তাই নিজ দেশে সিনেমা দেখার ঘোষণা দিল দেশটি।

সোমবার সিনেমার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। যুগান্তকারী এই সিদ্ধান্ত দেশটির শক্তিশালী যুবরাজ সালমান বিন মোহাম্মদের সামাজিক সংস্কারের একটি অংশ।

সৌদি আরবে কয়েক দশক ধরে সিনেমার ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। সৌদি আরবের সংস্কৃতি ও তথ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ২০১৮ সালের প্রথম দিকে সৌদি আরবে বাণিজ্যিক সিনেমার অনুমোদন দেয়া হবে যা ৩৫ বছরের মধ্যে এই প্রথম।’

এতে আরো বলা হয়, সরকার অবিলম্বে সিনেমা তৈরির ছাড়পত্র দেয়া শুরু করবে। আগামী বছরের প্রথমদিক থেকেই হলে গিয়ে সিনেমা দেখার সুযোগ পেতে পারেন নাগরিকরা। আগামী বছর থেকে জনসাধারণকে সিনেমা দেখার অনুমতি দেওয়া হবে।

বিবৃতিতে দেশটির সংস্কৃতি ও তথ্যমন্ত্রী আওয়াদ বিন সালেহ আলওয়াদ বলেছেন, শিল্পটির নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে জেনারেল কমিশন ফর অভিওভিজুয়াল মিডিয়া সৌদি আরবে সিনেমার অনুমোদন দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। ২০১৮ সালের মার্চের মধ্যেই প্রথম সিনেমা মুক্তি পাবে, তারা এমনটিই প্রত্যাশা করছেন বলে জানিয়েছেন আলওয়াদ।