হৃদয়বানদের এগিয়ে আসার অপেক্ষায় স্বামীর আশ্রয় হারানো সুলতানা

0
212

শারমিন আজাদ:

জীবনে চলার পথ অনেকেরই বন্ধুর। তবে এই পথে চরম অসহায়তা নিয়ে আসে মরণ ব্যাধি ক্যান্সার। এমনই এক মরণ ব্যাধি ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত বরিশালের সুলতানা আক্তার।

একাই লড়ছেন ক্যান্সারের সাথে। পাশে আছে দুই কন্যা সন্তান। সুলতানার আশা, তার চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে হৃদয়বান ব্যক্তিরা এগিয়ে আসবেন।

সুলতানা আক্তার। বয়স ৪৬। চল্লিশে পা দেওয়ার বহু আগেই হারিয়েছেন স্বামীর আশ্রয়। দুই সন্তানসহ সুলতানাকে একা ফেলে চলে যান তার স্বামী। দুই মেয়ে নিয়ে জীবনযুদ্ধে অংশ নেন, একাই হাল ধরেন সংসারের। সেলাই মেশিন চালিয়ে সংসারের খরচ যোগান দেন ।

প্রতিবেদক শারমিন আজাদের সাথে সুলতানার ছোট মেয়ে

কিন্তু সেই পথ চলায়ও বাধা। তিন বছর আগে ধরা পড়ে ব্রেস্ট ক্যান্সার। সুলতানার অভাবের সংসারে এ যেন মরার উপর খাড়ার ঘা। বরিশালে বাসিন্দা সুলতানা বর্তমানে চিকিৎসার জন্য রাজধানীর বসিলায় একটি রুম ভাড়া করে থাকছেন।

আত্মীয় স্বজন, স্থানীয়দের কাছ থেকে সাহায্য নিয়ে চালান চিকিৎসা ব্যয়। একসময় বন্ধ হয়ে যায় সেই সাহায্যও। এখনও বাকি আছে তার কেমো।

স্তন ক্যান্সারের মতো অসুখের ব্যয়বহুল চিকিৎসা ভার মেটাতে পারছেন না জীবন যুদ্ধে মুখ থুবড়ে পড়া সুলতানা। তার ছোট মেয়ের আশা, মানবতার হাত বাড়িয়ে দেবেন হৃদয়বানরা।

সুলতানার প্রত্যাশা, কোন সহৃদয় ব্যক্তি এগিয়ে আসবেন তার চিকিৎসা সেবায়, তিনিও ফিরে পাবেন নতুন জীবন।