হেমা মালিনীকে পেতে যা ত্যাগ করেছিলেন ধর্মেন্দ্র

0
60

২০১৮ সালে ৭০-এ পা দেবেন হেমা মালিনী। এখনো তার প্রচুর ভক্ত। বলিউটের এককালের সাড়া জাগানো নায়িকা। তাকে নিজের করে পাওয়ার স্বপ্ন দেখেছেন অনেকেই। কিন্তু সে দৌড়ে জিতেছেন বলিউডেরই আরেক তারকা ধর্মেন্দ্র। এ জন্য তাকে অনেক কিছু ত্যাগ করতে হয়েছে স্ত্রী, সন্তান, ধর্ম-অনেক কিছু।

হেমা মালিনীর জন্য ধর্মেন্দ্র তার প্রথম স্ত্রীকে ত্যাগ করেন। এরপর ধর্ম পরিবর্তন করে হেমা মালিনীকে বিয়ে করেন। সেই স্ত্রীর দুই সন্তান হলেন বলিউডের দুইজন স্টার সানি দেওল ও ববি দেওল। হেমা মালিনীর সঙ্গে ধর্মেন্দ্রর বিয়েতে মত ছিল না অভিনেত্রীর বাবারও। কিন্তু, ধর্মেন্দ্র ছাড়া অন্য কাউকে আপন করতে পারবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়েছিলেন বলিউডের ‘ড্রিম গার্ল’।

হেমাকে নাকি বিয়ে করতে চেয়েছিলেন সঞ্জীব কুমার। ‘শোলে’র শুটিংয়ের সময় হেমা মালিনীকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ভারাক্রান্ত হৃদয় নিয়ে ফিরতে হয় সঞ্জীব কুমারকে।

জিতেন্দ্রর সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসার পরও তাকে প্রত্যাখান করেছিলেন হেমা মালিনী। শোনা যায়, হেমা-জিতেন্দ্রর বিয়ের দিন মদ্যপ অবস্থায় সেখানে হাজির হন ধর্মেন্দ্র। বিয়ের আসরেই হেমার সঙ্গে কথা বলবেন বলে সময় চেয়ে নেন। ধর্মেন্দ্রর সঙ্গে কথা বলার পরই, জিতেন্দ্রর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন হেমা।

ধর্মেন্দ্র যখন হেমা মালিনীকে বিয়ে করেন ওই সময় তিনি দুই ছেলের বাবা। সানি দেওল এবং ববি দেওলের মায়া কাটিয়েই শেষ পর্যন্ত হেমা মালিনীকে বিয়ে করেন ধর্মেন্দ্র।

বিয়ের পরও ‘ড্রিম গার্ল’ হেমা মালিনীকেকে ভালভাবে নিতে পারেননি ধর্মেন্দ্রর পরিবার। এমনকী, সানি দেওল ও ববি দেওলের সঙ্গেও ভাল সম্পর্ক নেই হেমা মালিনীর। তার মেয়ে এশা দেওলের বিয়েতে হাজির হননি সানি এবং ববি।