১০০ শয্যার করোনা হাসপাতাল চালু হলো মানিকগঞ্জে

0
242

আজ থেকে মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হলো। মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হাসপাতালে একটি অংশকে করোনারোগীদের হাসপাতাল হিসাবে ব্যবহার করা হবে। এ জন্য চিকিৎসক ও নার্সসহ প্রয়োজনীয় লোকবল নিয়োজিত করা হয়েছে। তবে প্রথম দিনই দেখা গেছে এলোমেলো অবস্থা।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আরশ্বাদ উল্লা জানান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য এই হাসপাতাল চালু করা হলো। চিকিৎসক হিসাবে নিয়োজিত করা হয়েছে ৭৬ জন ডাক্তার, ৯০ জন নার্স। মানিকগঞ্জ কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং সদর হাসাপাতাল থেকে ডাক্তার, নার্সসহ অন্যন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের এই হাসপাতালে সংযুক্ত করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, হাসপাতালের পুরনো ভবন ও বর্ধিত নুতন অংশের পুরোটাই এখন করোনা হাসপাতাল হিসাবে ব্যবহার করা হবে। বেডের সংখ্যা ১০০। এ ছাড়াও রয়েছে ভেন্টিলেশনের সুযোগসহ দুটি আইসিইউ ইউনিট। চিকিৎসাকর্মীদের জন্য সুরক্ষাসামগ্রী আছে, তবে আরো প্রয়োজন। চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে তিনি জানান, এই হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা নেই।

তিনি আরো জানান, হাসপাতালের পুরনো ভবন ও বর্ধিত নুতন অংশের পুরোটাই এখন করোনা হাসপাতাল হিসাবে ব্যবহার করা হবে। বেডের সংখ্যা ১০০। এ ছাড়াও রয়েছে ভেন্টিলেশনের সুযোগসহ দুটি আইসিইউ ইউনিট। চিকিৎসাকর্মীদের জন্য সুরক্ষাসামগ্রী আছে, তবে আরো প্রয়োজন। চাহিদাপত্র পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে তিনি জানান, এই হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা করার ব্যবস্থা নেই।

আজ সরেজমিনে ওই হাসপাতালে দেখা গেছে, চারজন রোগী ভর্তি রয়েছে। এদের স্বজনদের সাথে কথা বলে জানা গেল, করোনাভাইরাসে সংক্রমণের উপসর্গ থাকায় তাদের এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।