২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পাস

0
332

একাদশ জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ নতুন অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট পাস হয়েছে। 

মঙ্গলবার স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকে ২০২০-২১ অর্থবছরের এই বাজেট প্রস্তাব কণ্ঠভোটে পাস হয়। ১ জুলাই থেকে এ বাজেট কার্যকর হবে।

টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর আওয়ামী লীগ সরকারের দ্বিতীয় বছরের দ্বিতীয় এবং টানা ১২তম বাজেট এটি। আর অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামালের দ্বিতীয় বাজেট।

সকালে সংসদের অধিবেশন শুরু হলে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আনা ছাঁটাই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জন্য বরাদ্দ প্রস্তাব উত্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর একে একে অন্য মন্ত্রীরা তাদের স্ব স্ব মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাব উত্থাপন করেন। কণ্ঠভোটে সেসব প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। এর মধ্যে স্বাস্থ্য ও আইন মন্ত্রণালয়ের ছাঁটাই প্রস্তাবের ওপর সাংসদেরা আলোচনায় অংশ নেন।

এর আগে ৪২১টি ছাঁটাই প্রস্তাব আসে। দেশের মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ৫৯টি দাবির বিপরীতে বিরোধীদল জাতীয় পার্টি ও বিএনপির  ছাঁটাই প্রস্তাব দেন। যেসব সংসদ সদস্য এ প্রস্তাব দিয়েছেন তারা হলেন, জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ, শামীম হায়দার পাটোয়ারী, পীর ফজলুর রহমান, ফখরুল ইমাম, লিয়াকত হোসেন খোকা, মুজিবুর রহমান (চুন্নু) ও রওশন আরা মান্নান এবং বিএনপির হারুনুর রশীদ।

সবার শেষে নির্দিষ্টকরণ বিল পাসের মধ্য দিয়ে বাজেট পাস হয়।

গত ১১ জুন অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল সংসদে বাজেট উপস্থাপনের পর মোট ৩৫ জন সংসদ সদস্য ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে ১৫ ঘণ্টা ১০ মিনিট আলোচনা করেন। ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রথম দিন (১ জুলাই বুধবার) থেকে এ বাজেট কার্যকর হবে।