৫ জেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে পৃথক বন্দুকযুদ্ধে ৭ মাদক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

0
73

দেশের ৫ জেলায় মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধে এ পর্যন্ত ৭ মাদক ব্যবসায়ীর নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

যশোরে পৃথক পৃথক ভাবে ২ দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ৩ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। পুলিশ পরিত্যক্ত অবস্থায় অস্ত্র, গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার করেছে।

যশোর সদরের পুলিশ জানায়, ২ দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুক যুদ্ধের খবরে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মাথায় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ২ মাদক ব্যবসায়ীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে যশোর শহরের খোলাডাঙ্গা মঙ্গলগাতি গ্রামের মাঠে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে আনলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে ১টি ওয়ান শ্যুটারগান, একটি গুলি,২টি গুলির খোসা ও ইয়াবা উদ্ধার করে। এদিকে, চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। রোববরার রাত পৌনে ১টার দিকে উপজেলার উথলী গ্রামের সন্যাসীতলা মাঠের মধ্যে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি সর্টগান, দু’টি কার্তুজ, ৩টি রামদা এবং ১ বস্তা ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ নরেন্দ্রপুর এলাকার র‌্যাবের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছব্দুল মন্ডল নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি নাইন এমএম পিস্তল, ২ রাউন্ড গুলি, ম্যাগজিন, ফেনসিডিল, ইয়াবা, একটি হেলমেট ও ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে র‌্যাব।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে দেউলাবাড়ি এলাকায় র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক মাদক ব্যাবসায়ী নিহত এবং দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছে। এসময় একটি বিদেশী পিস্তল,একটি ম্যাগজিন,৩রাউন্ড গুলি,১শ পিস ফেনসিডিল ও পনেরশ’পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

অপরদিকে, রাজশাহীতে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে লিয়াকত আলী মন্ডল নামে এক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন।

রোববার দিবাগত রাতে বেলপুকুর থানার ক্ষুদ্র জামিরা গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল,একটি ম্যাগজিন, দুই রাউন্ড গুলি, একটি মোটরসাইকেল ও ৮২৩ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।