হিমেল হাওয়ায় দৃশ্যমান হচ্ছে শীত

118

শারমিন আজাদ:

শীত আসছে পায়ে পায়ে। প্রকৃতি ছড়াচ্ছে শীতের আগমনী বার্তা। দু’দিনের মধ্যেই তাপমাত্রা কমার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

তবে উত্তরঙ্গে এখনই তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রী সেলসিয়াসে নেমে গেছে। সেই সাথে সম্প্রতি হয়ে যাওয়া নিম্নচাপের প্রভাবে আকাশ মেঘলা থাকছে বলে জানালেন আবহাওয়াবিদরা। এই সময়ে ঠান্ডাজনিত রোগের প্রকোপ বাড়ার আশংকা চিকিৎসকদের।

বাতাসে হিমের ছোঁয়া। রোদের দেখা মিলছে কম। প্রকৃতিতে ছাতিম আর শিউলি ফুলের মিষ্টি ঘ্রাণ শীত আগমনের জানান দিচ্ছে। কবির ভাষায়-শিউলির প্রলোভনেই হেমন্তের হাত ধরে আসে শীত।

হেমন্তকেই বলা হয় শীতের পূর্বাভাস। এসময় ভোরের দিকে মৃদু কুয়াশা। বাংলা বর্ষপঞ্জিতে কার্তিকের পর অগ্রহায়ন পেরিয়ে পৌষ ও মাঘ শীতকাল।

রিপোর্টার শারমিন আজাদ

প্রকৃতির এই রূপই বলে দিচ্ছে শীত আর দূরে নেই। তাই, শীতের পাখি দেখার অপেক্ষায় থাকা ভ্রমণপিপাসু মানুষেরা এরইমধ্যে বেড়াতে বেরিয়েছেন। সঙ্গী করে নিয়েছেন শীতের পোষাকও।

শীত শুরুর আগের অবস্থাকে আবহাওয়া বিজ্ঞানের ভাষায় বলে, পোস্ট মনসুন। এই সময়ে ঠান্ডা ও ধূলোজনিত অসুখের প্রকোপ বাড়ে।

শীত মৌসুমে সবজি কৃষকের বড় প্রাপ্তি। এবারের শীত দীর্ঘায়িত হলে ফলন বাড়বে শীতকালীন শস্য, গম, ভুট্টা ও চা এর, মনে করছেন কৃষিবিদরা। তবে কুয়াশা বেশি হলে কোল্ড ইনজুরির আশংকাও রয়েছে।