গবেষণার নতুন তথ্য; বিড়ালের চেয়ে বেশি স্মার্ট ও বুদ্ধিমান কুকুর

5

বিজ্ঞানের কল্যাণে বিশ্ব যাচ্ছে এগিয়ে। গবেষকরা নিরন্তর তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। কখনো মহাকাশ, কখনো ভূমন্ডল বা আমার মানবদেহের বিভিন্ন অঙ্গ প্রতঙ্গ ও রোগের তথ্য সরবরাহ করেন। এবার তারা দিয়েছেন বিড়াল ও কুকুরের একটি তথ্য।

বিজ্ঞানীদের নতুন একটি গবেষণায় বেরিয়ে এসেছে বিড়ালের চেয়ে কুকুরের বুদ্ধি বেশি। ফ্রন্টিয়ার্স অব নিউরোয়টমি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণাটিতে বলা হয়েছে কুকুর ও বিড়াল সম্পর্কে এই তথ্য দেওয়া হয়েছে।

গবেষণায় বলা হয়, কুকুর-বিড়ালের চেয়ে বেশি স্মার্ট এবং বুদ্ধিমান হয়ে থাকে। কুকুরের মস্তিষ্কে অন্য প্রাণিদের তুলনায় দ্বিগুন নিউরন থাকায় কুকুরের মস্তিষ্কের কোষের চিন্তা।

পরিকল্পনা এবং আচরণ বিড়ালের তুলনায় খুবই আলাদা ও দ্রুত। তাদের সামগ্রিক জ্ঞানীয় দক্ষতার সাথে নিউরনের ঘনত্বের এক ধরণের সংযুক্তি রয়েছে যেটাকে আই.ই ইনটেলিজেন্স বলে।

গবেষণার জন্য, ভ্যন্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান ও জৈবিক বিজ্ঞানের সহকারি অধ্যাপক সুজানা হারকুলানো হুজেলের নেতৃত্বে গবেষকদের একটি গ্রুপ বিভিন্ন মৎসগোষ্ঠী এবং স্তন্যপায়ী প্রাণীর নিউরনের ঘনত্ব এবং মস্তিষ্কের আকার পরীক্ষা করেন।

এই গবেষণায় দেখা যায়, এমন অনেক স্তন্যপায়ী প্রাণী আছে যারা শিকারী স্বভাবের কারণে অনেক বেশি শক্তিশালী হয়ে থাকে। আর এই প্রাণী গুলোর প্রতিই সকলের আগ্রহ অনেক বেশি থাকে।

শিকারের আগে তাদের নিউরোনগুলি খুব কার্যকর হয়ে ওঠে। আর এই বিশেষ নিউরোনের কারণে তারা উচ্চতর বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন হয়ে থাকে।

বিশদ জানতে গবেষকরা কুকুর, বিড়াল, ভাল্লুক, সিংহ, হায়না, বেজি এবং র‌্যাকোনসসহ আরও ৮ টি স্তন্যপায়ী প্রাণীর মস্তিষ্কের উপর পরীক্ষা করেছেন। তাদের মস্তিষ্কের আকার প্রায় কাছাকাছি হলেও প্রত্যেকেই আলাদা আলাদা বৈশিষ্টের অধিকারী।