ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে আর্শিবাদ হয়ে উঠেছে মেঘনা ও গোমতী সেতু

0
59

রাকিব হাসান : ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে আর্শিবাদ স্বরূপ চালু হলো দ্বিতীয় মেঘনা ও গোমতী সেতু। নির্ধারিত সময়ের আগেই নির্মান কাজ সম্পন্ন হওয়ায় সাশ্রয় হয়েছে প্রায় ৭০০ কোটি টাকা। যানজন নিরসনের পাশাপাশি দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে সেতু দুইটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়কের যানজট নিরসনে নির্মিত হলো কুমিল্লার গোমতী নদীর ওপর দ্বিতীয় গোমতী এবং মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় মেঘনা নদীর ওপর দ্বিতীয় মেঘনা সেতু।

দেশবাসীকে ঈদের উপহার স্বরুর ঈদের আগেই গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতু দুটির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  ৯৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত গোমতী সেতুর দৈর্ঘ ১ হাজার ৪১০ মিটার এবং প্রস্থ ১৭ দশমিক ৭৫ মিটার।

৭৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত দ্বিতীয় মেঘনা সেতুর দৈর্ঘ ৯৩০ মিটার এবং প্রস্থ ১৭.৭৫ মিটার।
চুক্তি অনুযায়ী ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে সেতু দুইটির নির্মান কাজ শেষ করার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ের প্রায় সাত মাস আগেই তা সম্পন্ন করে জাপানের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলো। এতে সাশ্রয় হয় প্রায় ৭০০ কোটি টাকা।

প্রথমবারের মতো সেতুতে যানবাহন টোল আদায়ে চালু হয়েছে হয়েছে ইলেকট্রনিক টোল কালেকশন পদ্ধতি।
দ্বিতীয় মেঘনা ও গোমতী সেতু চালুর ফলে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যাটজটের পাশাপাশি সময়, খরচ ও ভোগান্তি অনেকটাই কমে গেছে বলে জানান চলাচলকারীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here