MYTV Live

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পার পদত্যাগ

ভারতের কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা পদত্যাগ করেছেন। সোমবার রাজ্য গভর্নর থাওয়ার চাঁদ গেহলটের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি।

ইয়েদুরাপ্পার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন গভর্নর থাওয়ার চাঁদ গেহলট। এসময় নতুন মুখ্যমন্ত্রী শপথ না নেওয়া পর্যন্ত তাকেই কাজ করে যেতে আহ্বান জানিয়েছেন গভর্নর।

ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) প্রবীণ নেতা বি এস ইয়েদুরাপ্পা। এইচ ডি কুমারাস্বামীর নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের পতনের পর ২০১৯ সালে তিনি মুখ্যমন্ত্রী হন। এ নিয়ে চারবার মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু কর্ণাটকের এই মুখ্যমন্ত্রী কখনোই মেয়াদ পূরণ করতে পারেননি। ২০০৮ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত তিনি মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। পরে তাঁকে কারাগারে যেতে হয়।

পদত্যাগপত্র দেওয়ার পর তাকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, রাজ্য গভর্নরের দায়িত্ব দেওয়া হলে তিনি কি তা পালন করবেন? জবাবে ইয়েদুরাপ্পা বলেন, ‘এ রাজ্য ছেড়ে যাওয়ার কোনো প্রশ্ন নেই। কর্ণাটকের জনগণের কল্যাণে আমি কাজ করব।’

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ইয়েদুরাপ্পা যখন মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন, তখন এর বিরোধিতা করেছিলেন রাজ্য বিজেপির একটি অংশ। সেই বিরোধী অংশটি তাঁকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরাতে চেয়েছিল। এর ফলে কর্ণাটকের রাজনীতিতে একধরনের অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছিল। কিন্তু ইয়েদুরাপ্পার পদত্যাগের মধ্য দিয়ে সেই অনিশ্চয়তার অবসান হলো।

পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে এক আবেগঘন বক্তব্য দিয়েছেন ইয়েদুরাপ্পা। তিনি বলেন, ‘বিজেপি নেতা অটল বিহারি বাজপেয়ি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর আমাকে কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আমি বলেছিলাম, আমি কর্ণাটকেই থাকব। এখন কর্ণাটকে বিজেপি বড় হয়েছে। এটা সব সময় আমার জন্য অগ্নিপরীক্ষা ছিল।’

রাজ্যটির পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন লিঙ্গায়েত নেতা মুরুগেশ নিরানি।

Related Articles

Stay Connected

22,878FansLike
3,592FollowersFollow
20,300SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles