MYTV Live

সুইস ব্যাংকে টাকা রাখার ব্যাপারে তথ্য জানতে না চাওয়ার কারণ জানতে চায় হাইকোর্ট

সুইস ব্যাংকে অবৈধ পথে বাংলাদেশিরা যেসব অর্থ জমা রেখেছেন বা পাচার করেছেন সেসব বিষয়ে সরকার এবং দুদক কী পদক্ষেপ নিয়েছেন সেটি জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার স্বপ্রণোদিত হয়ে হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার এবং বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ দুদকের কাছে এবং রাষ্ট্রপক্ষের কাছে এই প্রশ্ন রাখেন।

প্রকাশিত সংবাদের রেফারেন্স টেনে আদালত জানতে চান কী পরিমান অর্থ সুইস ব্যাংকে পাচার হয়েছে এবং এ বিষয়ে সরকার ও দুদক কী পদক্ষেপ নিয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষ বা দুদক কোনো তথ্য দিতে পারেনি আদালতকে। তাই আগামী রোববারের মধ্যে এ বিষয়ে কি কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা হাইকোর্টকে জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষকে।

আদালতে এদিন দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

আইনজীবীরা জানান, সুইস ব্যাংকে জমা করা অর্থের বেশিরভাগই অবৈধ পথে এ ধরনের অভিযোগের বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার সুইস ব্যাংকের কাছে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য চায়নি, এ সম্পর্কে কোনো পদক্ষেপ নিয়েছে কিনা তা রোববারের মধ্যে দুদক এবং রাষ্ট্রপক্ষকে জানানোর জন্যে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এর আগে গতকাল সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে বাংলাদেশিদের টাকার বিষয়ে বাংলাদেশ নির্দিষ্ট কোনো তথ্য চায়নি বলে জানান ঢাকায় নিযুক্ত সুইস রাষ্ট্রদূত নাথালি চুয়ার্ড।

Related Articles

Stay Connected

22,878FansLike
3,505FollowersFollow
20,100SubscribersSubscribe
- Advertisement -spot_img

Latest Articles